বিএফইউজে নির্বাচনে শেষ মুহূর্তে ভোটারদের ভিড়

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৩৮ পিএম, ২৩ অক্টোবর ২০২১

বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) নির্বাচনে শেষ মুহূর্তে ভোটারদের ভিড় জমেছে। সকালে ভোটারদের উপস্থিতি কম থাকলেও দুপুর থেকেই বাড়তে থাকে উপস্থিতি। নির্বাচন ঘিরে উৎসবমুখর পরিবেশে নিজেদের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে আসেন ভোটাররা। শেষ মুহূর্তে হলেও ভোট দিতে আসেন তারা।

জাতীয় প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে নির্বাচনের ভোটকেন্দ্র স্থাপন করা হয়। শনিবার (২৩ অক্টোবর) সকাল ৯টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। চলবে বিকেল ৫টা পর্যন্ত। জাতীয় প্রেস ক্লাবের পাশাপাশি সারাদেশের আরও ৯টি ভোটকেন্দ্রে এই ভোটগ্রহণ চলছে।

জাতীয় প্রেস ক্লাবে সরেজমিনে দেখা যায়, ভোটকেন্দ্রের বাইরে ভোটার, প্রার্থী ও সমর্থকদের উপস্থিতিতে যেন উৎসব বিরাজ করছে। সকালে ভোটারদের উপস্থিতি কম হলেও দুপুরের পর থেকেই তা বাড়তে থাকে। ভোটকেন্দ্রে ভোটারদের জন্য ২০টি বুথ তৈরি করা হয়েছে।

ভোট দিতে আসা ঢাকা সাব-এডিটর কাউন্সিলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাওহার ইকবাল খান জানান, ইউনিয়নের নির্বাচন আনন্দ ও উৎসবের বিষয়। নিজের ভোট দিয়ে পছন্দের লোকদের নির্বাচিত করবো এটাই ভালো লাগছে। এর মধ্য দিয়ে এক মিলন মেলায় পরিণত হয় জাতীয় প্রেস ক্লাব। একটি উৎসব উৎসব পরিবেশ বিরাজ করে।

jagonews24

এবারের নির্বাচনে ওয়েজ বোর্ড, গণমাধ্যম আইনসহ সাংবাদিকদের কল্যাণে যারা কাজ করবেন ও যোগ্য ব্যক্তিদেরই নেতৃত্বে দেখতে চান ভোটাররা। ভোট গণনা শেষে সেই ফলাফলই প্রত্যাশা গণমাধ্যম কর্মীদের। ভোট দেওয়া শেষে সাংবাদিক হাসান ইমাম রুবেল জাগো নিউজকে বলেন, সাংবাদিকদের স্বার্থে যারা কাজ করেছেন এবং যারা তাদের এই কাজ অব্যাহত রাখবেন বলে আশা করি তারাই যেন নির্বাচিত হন। এমন ব্যক্তিদেরকেই ভোট দিয়েছি।

নির্বাচন নিয়ে একাধিক প্রার্থীর সঙ্গে কথা হয়। তারা জানান, দুপুরের পর থেকে ভোটারদের উপস্থিতি বেড়েছে। নিজেদের কাজ সেরে শেষ মুহূর্তে ভোট দিতে আসছেন অনেকেই। এবারের নির্বাচনের মধ্য দিয়ে যোগ্য ও সাংবাদিকদের কল্যাণে কাজ করবেন এমন ইউনিয়ন চান ভোটাররা।

নির্বাচন কমিশনের সদস্য শাহনাজ সিদ্দিকি সোমা জানান, দুপুর থেকে ভোটার উপস্থিতি বেড়েছে। বিকেল সাড়ে ৩টা পর্যন্ত এক হাজারেরও বেশি ভোট পড়েছে।

নির্বাচনের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে জানতে চাইলে বিএফইউজে নির্বাচন কমিশনের চেয়ারম্যান শাহজাহান সরদার জাগো নিউজকে বলেন, নির্বাচনে সুষ্টুভাবে ভোটগ্রহণ চলছে। সহজে যেন ভোট দিতে পারে এজন্য ভোটারদের সুবিধার্থে ২০টি বুথ স্থাপন করা হয়েছে। কোনো ভোটার ভোটকেন্দ্রে মোবাইল নিয়ে প্রবেশ করতে পারছেন না। তাই মোবাইল রাখার জন্যও ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। কেন্দ্রের ভিতরে প্রার্থীদের এজেন্টরা উপস্থিত রয়েছেন। ভোটাররা ৫টার মধ্যে কেন্দ্রে প্রবেশ করলে তাদের ভোট তার পরেও নেওয়া হবে।

তিনি বলেন, ঢাকাসহ সারাদেশের ১০টি ভোট কেন্দ্রে বিকেল ৫টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ চলবে। ভোটগ্রহণ শেষে প্রার্থীদের সামনেই ভোট গণনা শেষে প্রাথমিক ফলাফল ঘোষণা করা হবে।

আরএসএম/কেএসআর/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]