ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় সাংবাদিকের ওপর কিশোর গ্যাংয়ের হামলা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ০২:৫০ এএম, ২৫ মে ২০২২

ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় দৈনিক ভোরের পাতা পত্রিকার সোনারগাঁ প্রতিনিধি ও সোনারগাঁ জি আর ইনস্টিটিউশন মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষক মশিউর রহমানের ওপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে।

মঙ্গলবার (২৪ মে) সন্ধ্যায় মোগরাপাড়া চৌরাস্তা স্বপ্নদ্বীপ শপিং মলের সামনে এ ঘটনা ঘটে। আহত মশিউর রহমানকে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ঘটনায় আজ রাতে ভুক্তভোগীর ছোট ভাই মাহবুবুর রহমান বাদী হয়ে সোনারগাঁ থানায় অভিযোগ করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, জাতীয় শিশু পুরস্কার প্রতিযোগিতায় নারায়ণগঞ্জ ওসমানী স্টেডিয়ামে সোনারগাঁ জি আর ইনস্টিটিউশন মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের ছাত্রীরা অংশ নেয়। প্রতিযোগিতা শেষে বাড়ি ফেরার পথে সন্ধ্যা ৭টা ২৫ মিনিটে সোনারগাঁয়ের মোগরাপাড়া চৌরাস্তার স্বপ্নদ্বীপ শপিংমলের সামনে তাদের বহন করা অটোরিকশা জ্যামে পড়ে।

এক পর্যায়ে হাবিবপুর গ্রামের কিশোর গ্যাংয়ের লিডার অন্তুর নেতৃত্বে ৭-৮ জনের একটি দল চারটি মোটরসাইকেলযোগে উল্টো পথে এসে অটোরিকশার গতিরোধ করে অশ্লীল ভাষায় অঙ্গভঙ্গি করে ছাত্রীদের উত্যক্ত করতে থাকে।

এ সময় মশিউর ছাত্রীদের উত্যক্ত ও উল্টোপথে এসে গতিরোধের বিষয়টি জানতে চাইলে তাকে টেনে-হিঁচড়ে অটোরিকশা থেকে নামিয়ে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে আহত করে বখাটেরা।

এক পর্যায়ে তিনি পার্শ্ববর্তী মার্কেটে গিয়ে আশ্রয় নিলে সেখানে কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা তাকে অবরুদ্ধ করে রাখে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে উদ্ধার করে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।

এ বিষয়ে সাংবাদিক মশিউর রহমান বলেন, কয়েকজন অচেনা যুবক চারটি মোটরসাইকেল যোগে এসে ছাত্রীদের উক্ত্যক্ত করছিল। বাধা দেওয়ায় তারা আমাকে পিটিয়ে আহত করে।

সোনারগাঁ থানার ওসি মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান বলেন, সাংবাদিককে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার ছোট ভাই বাদী হয়ে অভিযোগ করেছেন। আসামিদের গ্রেপ্তারে পুলিশ অভিযানে নেমেছে।

রাশেদুল ইসলাম রাজু/এমপি

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]