Jago News logo
Banglalink
ঢাকা, শুক্রবার, ২৮ এপ্রিল ২০১৭ | ১৫ বৈশাখ ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

আব্দুস ছোবহান হাবের সভাপতি নির্বাচিত


নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ০৮:২৭ এএম, ২১ এপ্রিল ২০১৭, শুক্রবার | আপডেট: ১২:২৫ পিএম, ২১ এপ্রিল ২০১৭, শুক্রবার
আব্দুস ছোবহান হাবের সভাপতি নির্বাচিত

হজ এজেন্সিজ অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী পরিষদ নির্বাচনে (২০১৭-২০১৯) সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন আব্দুস ছোবহান ভূঁইয়া। তিনি হাব গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট থেকে প্রার্থী ছিলেন।

বৃহস্পতিবার রাতে রাজধানীর নয়াপল্টনে আনন্দ কমিউনিটি সেন্টারে ভোট গণনা শেষে তাকে নির্বাচিত ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার হারুন উর রশীদ।

নির্বাচনে আব্দুস ছোবহান ভূঁইয়া পেয়েছেন ৫৬৮ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী শেখ আবদুল্লাহ পেয়েছেন ৪২০ ভোট।

গণতান্ত্রিক ফোরাম থেকে শুধুমাত্র একটি পদে (সহ-সভাপতি) নির্বাচিত হন ফরিদ আহমেদ মজুমদার। কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী পরিষদের মোট ৫৪টি পদের মধ্যে ৫৩টি পদেই গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট প্রার্থীরা জয়ী হন।

এবারের নির্বাচনে আবদুল্লাহর নেতৃত্বে গণতান্ত্রিক ফোরাম প্রার্থীদের অনেককেই ফেভারিট মনে করা হলেও নির্বাচনে তাদের ভরাডুবি হয়।

এ প্যানেল থেকে নির্বাচিত সহ-সভাপতি ফরিদ আহমেদ মজুমদার জানান, তাদের প্যানেলের প্রার্থীরা তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে খুব কম ভোটেই হেরেছেন।

নব-নির্বাচিত সভাপতি আবদুস ছোবহান ভুঁইয়া হাসান ট্রাভেলস অ্যান্ড ট্যুরস এজেন্সির মালিক। তার লাইসেন্স নম্বর ৮১৪। তিনি কুমিল্লা চৌদ্দগ্রাম উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান।

শুক্রবার সকালে জাগো নিউজের সঙ্গে আলাপকালে নির্বাচনে নিরঙ্কুশ বিজয়ে সকল হজ এজেন্সির মালিক-কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, নির্বাচনী ইশতেহার অনুসারে তিনি ধর্মমন্ত্রণালয় ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে অনুরোধ করে হজযাত্রীর কোটা বৃদ্ধি, হজ এজেন্সির মালিকদের জন্য ছয় মাসের মাল্টিপল ভিসা দেয়া ও আপাতত প্রত্যেক এজেন্সি যেন নিজেরা তাদের হজযাত্রীর ব্যাগ কিনতে পারেন তার ব্যবস্থা করার চেষ্টা করবেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়ে চলে বিকাল ৫টা পর্যন্ত। নির্বাচনে মোট ভোটার ছিল এক হাজার ১৫৭ জন। এর মধ্যে নির্বাচনে ভোট কাস্ট হয়েছে ৯৬৩টি।

নির্বাচনে মোট ৫৪টি পদের বিপরীতে কেন্দ্রীয় কমিটিতে ২৭ জন, ঢাকা বিভাগ থেকে ১৩ জন, চট্টগ্রাম থেকে সাতজন এবং সিলেট থেকে সাতজন প্রার্থী নির্বাচিত হয়েছেন।

এবারের নির্বাচনে তিনটি প্যানেলে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন প্রার্থীরা। এর মধ্যে শেখ আবদুল্লাহর নেতৃত্বে হাব গণতান্ত্রিক ফোরাম, সাবেক সভাপতি জামালউদ্দিন আহমেদের নেতৃত্বে হাব সমন্বয় পরিষদ এবং আবদুস ছোবহান ভূঁইয়ার নেতৃত্বে হাব গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট । নির্বাচনে গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট প্যানেলের সব প্রর্থী জয়ী হয়েছেন।

নির্বাচনে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্বে ছিল হারুন উর রশীদ। তার নেতৃত্বে তিন সদস্যের নির্বাচন কমিশনার ও তিন সদস্যের আপিল বোর্ড ভোট গ্রহণের সার্বিক দায়িত্ব পালন করেন।

এসআই/এআরএস/এমএস/এমএস

আপনার মন্তব্য লিখুন...