মশার উপদ্রব : নগর ভবন ঘেরাওয়ের হুঁশিয়ারি যুবলীগ চেয়ারম্যানের


প্রকাশিত: ০৫:৩০ পিএম, ২৩ জুন ২০১৭

হঠাৎ বেড়ে যাওয়া মশার উপদ্রব এবং চিকুনগুনিয়া জ্বরের প্রকোপ থেকে রাজধানীবাসীকে মুক্তি দিতে ঢাকার দুই মেয়রকে দ্রুত পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন যুবলীগ চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী। না হলে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও ঢাকা সিটি কর্পোরেশন কার্যালয় ঘেরাও কর্মসূচি পালনের হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

শুক্রবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আয়োজিত ইফতার মাহফিল ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ নিয়ে কথা বলেন। ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগ আয়োজিত এ সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন যুবলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশিদ। সভায় সভাপতিত্ব করেন দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ওমর ফারুক চৌধুরী বলেন, স্বাধীনতার পরে রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার নেতৃত্বেই বাংলাদেশ এখন সবচেয়ে স্বর্ণসময় অতিবাহিত করছে। জনগণের মতায়নই আওয়ামী লীগের চালিকাশক্তি।

সাম্প্রতিক চিকুনগুনিয়ার প্রকোপ বৃদ্ধির প্রসঙ্গ তুলে যুবলীগ চেয়ারম্যান বলেন, ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় সম্প্রতি চিকুনগুনিয়া রোগের বিস্তার বৃদ্ধি পেয়েছে। জীবাণুবাহী মশার মাধ্যমে এ রোগের বিস্তার ঘটছে। সঠিকভাবে মশা নিধন করতে না পারায় এ পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণ করছে। মশা দমনের এ ব্যর্থতার দায়ভার ঢাকার দুই মেয়র এড়িয়ে যেতে পারেন না।

চিকুনগুনিয়া ঠেকাতে ঢাকার দুই মেয়র কেন ব্যবস্থা নিচ্ছেন না ব্যাপারে প্রশ্ন তুলে ওমর ফারুক চৌধুরী বলেন, এ ব্যাপারে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া না হলে যুবলীগ সিটি কর্পোরেশন ঘেরাও কর্মসূচি পালনে বাধ্য হবে।

যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশিদ বলেন, বাঙালি ধর্মপ্রাণ জাতি। কিন্তু রাজনীতির সঙ্গে ধর্মকে মিশিয়ে ফেলা ঠিক না। ইফতার মাহফিলের নামে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া পবিত্র রমজানে নোংরা রাজনীতি করছেন।

অনুষ্ঠানের শুরুতে দক্ষিণ যুবলীগের নেতাকর্মীরা সংগঠনের চেয়ারম্যানের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ঈদের শুভেচ্ছা স্বরূপ স্যালুট দিয়ে ও হাত তুলে উল্লাস প্রকাশ করেন।

দক্ষিণ যুবলীগের নেতাকর্মীরা ইসমাইল চৌধুরী সম্রাটের দেয়া নতুন পাঞ্জাবি পরে অনুষ্ঠানে অংশ নেন। ঈদ উপলক্ষে নগর দক্ষিণ যুবলীগের থানা-ওয়ার্ডসহ সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের তাদের পছন্দ অনুযায়ী এসব পাঞ্জাবি উপহার দেয়া হয়।

আওয়ামী লীগের ৬৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর দিনে দক্ষিণ যুবলীগের নেতাকর্মীদের আনন্দ যেন আরও জম্পেশ হয়ে ওঠে। তৃণমূলের একাধিক নেতাকর্মী শীর্ষ নেতার কাছ থেকে ঈদ উপহার পেয়ে উচ্ছ্বসিত অনুভূতি ব্যক্ত করেন।

তারা বলেন, অনানুষ্ঠানিকভাবে বিভিন্ন সময় অনেক কিছুই পেয়েছি। তবে ঈদ উপলক্ষে শীর্ষনেতার কাছ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে উপহার পাওয়ার নজির এবারই প্রথম। এমনিতে একটা পাঞ্জাবি হয়ত বিরাট মূল্যবান কিছু নয়, কিন্তু নেতার দেয়া পাঞ্জাবি তো অমূল্য।

দক্ষিণ যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল হক রেজার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় আরও বক্তব্য রাখেন কাজী আনিসুর রহমান, মাঈন উদ্দিন রানা, সারোয়ার হোসেন মনা, আনোয়ার ইকবাল সান্টু, কামাল উদ্দিন খান, নাজমুল হাসান টুটুল, মোরসালিন আহম্মেদ, খোরশেদ আলম প্রমুখ।

এইউএ/বিএ

আপনার মতামত লিখুন :