সিদ্দিকুরের রেটিনার ৯০ শতাংশ নষ্ট, দেশে ফিরছেন শুক্রবার

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:৩৭ পিএম, ০৭ আগস্ট ২০১৭ | আপডেট: ০৩:৫৪ পিএম, ০৭ আগস্ট ২০১৭

ভারতের চেন্নাইয়ে চিকিৎসাধীন সরকারি তিতুমীর কলেজের শিক্ষার্থী সিদ্দিকুর রহমানের দুই চোখের রেটিনার ৯০ শতাংশের বেশি নষ্ট হয়ে গেছে। তার দৃষ্টিশক্তি ফেরার সম্ভাবনা কম বলে জানিয়েছেন ভারতের চিকিৎসকরা।

এদিকে আগামী শুক্রবার (১১ আগস্ট) চেন্নাই থেকে দেশে ফিরবেন সিদ্দিকুর।

সোমবার সন্ধ্যায় জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিদ্দিকুরের সহপাঠী শেখ ফরিদ।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের চিকিৎসক জাহিদ আহসান মেনন বর্তমানে ভারতের চেন্নাইয়ে রয়েছেন। সন্ধ্যায় তার সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। ভারতের চিকিৎসকরা তাকে (মেনন) একথা জানিয়েছেন।

আগামী শুক্রবার তারা চেন্নাই থেকে দেশে ফিরবে বলে সিদ্দিকুরের ভাইয়ের বরাত দিয়ে নিশ্চিত করেছেন ফরিদ।

এর আগে গত ২০ জুলাই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত সাতটি কলেজের শিক্ষার্থীদের অবস্থান কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে পুলিশ-শিক্ষার্থীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এসময় চোখের আঘাতে গুরুত্বর আহত হন তিতুমীর কলেজের শিক্ষার্থী সিদ্দিকুর রহমান। ঘটনার পর প্রথমে তাকে জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউট এবং পরবর্তীতে সরকারি খরচে চেন্নাই পাঠানো হয়।

আহত সিদ্দিকুর বর্তমানে ভারতের চেন্নাইয়ের শংকর নেত্রালয়ে চিকিৎসাধীন। গত শুক্রবার তার অপারেশন করা হয়। শনিবার তার চোখের ব্যান্ডেজ খুললে বাম চোখে কিছুটা আলো দেখতে পান তিনি। তবে তার দৃষ্টিশক্তি ফিরে আসেনি। তার দৃষ্টিশক্তি ফিরে আসা না আসার ব্যাপারে আরও ২ মাস পর মন্তব্য করা যাবে বলে জানিয়েছেন ভারতের চিকিৎসকরা।

এদিকে বিভিন্ন গণমাধ্যমের দেখানো ভিডিও ফুটেজে পুলিশের ছোড়া টিয়ার সেল লেগে সিদ্দিকুরের পড়ে যাওয়ার চিত্র দেখা গেলেও বিষয়টি বরাবরই অস্বীকার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। ঘটনার অধিকতর তদন্তে পৃথক দুটি কমিটি তৈরি করা হয়। এদের মধ্যে ডিএমপি সদর দফতরের তদন্ত কমিটি সোমবার বেলা ১১টায় প্রতিবেদন জমা দিয়েছে।

এআর/জেইউ/জেএইচ/আরআইপি