‘ঘরে বসেও মানুষ খুন হচ্ছে'

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:১৯ পিএম, ২৩ নভেম্বর ২০১৭
ফাইল ছবি

বিরোধীদলীয় নেতা বেগম রওশন এরশাদ বলেছেন, ঘরে বসেও মানুষ খুন হচ্ছে। ঘরে মানুষ নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। কারা দেখবে? তাদের নিরাপত্তা দেবে কে?

বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদের ১৮তম অধিবেশনের সমাপনী বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

হঠাৎ করে মানুষের গুম হয়ে যাওয়া প্রসঙ্গে রওশন এরশাদ উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, নিখোঁজ হয়ে যাচ্ছে মানুষ। মুক্তিপণ আদায় করা হচ্ছে। আমি যা বলছি পত্রিকায় প্রকাশিত তথ্য থেকে বলছি। এসব কোনো বানানো কথা নয়। পাঁচ বছরে নিখোঁজ হয়েছে ৫১৯জন মানুষ। তারা কীভাবে নিখোঁজ হলো? কদিন আগে অনিরুদ্ধ রায় ফিরে আসল। তিনি কোথায় ছিলেন? কে তাদের নিয়ে গেল? অন্যরা ফিরল না। তাহলে বোঝা যাচ্ছে মানুষ নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। এই নিরাপত্তা দেয়ার দায়িত্ব কার-এটাই আমার প্রশ্ন। কাজেই এ বিষয়ে সতর্ক দৃষ্টি রাখা দরকার।

মাদকের প্রসারে উদ্বেগ প্রকাশ করে বিরোধীদলীয় নেতা বলেন, মাদক থেকে তরুণ প্রজন্মকে রক্ষা করতে হবে। ইয়াবার পর এখন ক্যাটামিন নামে নতুন মাদক এসেছে। নাকের সামনে স্প্রে করে নেশা করার নতুন পদ্ধতি।

তরুণ প্রজন্মকে রক্ষার জন্য রাত ১০টার পর হোয়াটসঅ্যাপ, ভাইভার, ম্যাসেঞ্জার এসব বন্ধ করে দেয়ার আহ্বান জানিয়ে রওশন এরশাদ বলেন, সৌদি আরবে এসব নাই। চায়নাতেও নাই। স্মার্টফোন থেকে আমাদের তরুণ প্রজন্মকে রক্ষা করতে হবে।

বিনামূল্যে শিক্ষার্থীদের দেয়া বইয়ের মান নিয়ে প্রশ্ন তোলে তিনি বলেন, এসব নিম্নমানের বই কতদিন টিকবে? নিম্নমানের ছাপা। ছবি হাতের ঘষায় উঠে যাচ্ছে। এ বিষয়ে তিনি সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

বিরোধী দলীয় নেতা বলেন, কোটি কোটি লোক বেকার। আমরা দেশব্যাপী ব্যবসার প্রসার ঘটাতে পারিনি। মানুষের কাজ নেই। কিন্তু কর্মসংস্থান সৃষ্টি করতে হবে। তাহলেই আমরা উন্নয়নের মহাসড়কে উঠতে পারব।

তিনি পারমাণবিক বর্জ্য নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে রূপপুর আণবিক পাওয়ার প্লান্ট স্থাপনের বিরোধিতা করেন।

এইচএস/জেডএ/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :