বর্ণিল আলোর বন্যায় ভাসছে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৬:১৩ পিএম, ২৪ নভেম্বর ২০১৭ | আপডেট: ০৬:১৪ পিএম, ২৪ নভেম্বর ২০১৭
বর্ণিল আলোর বন্যায় ভাসছে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান

‘বন্ধু দেখেছিস, গাছের ফাঁকে ফাঁকে লাল, নীল, সবুজ, হলুদ কত র‌ঙ-বেরঙের বাতিতে উদ্যানটিকে কী অপরুপ লাগছে। ইস! যদি উদ্যানের ভেতরে ঢুকে দু’বন্ধু ঘণ্টাখানেক ঘুরতে পারতাম।’

শুক্রবার দিনগত রাত সাড়ে ৯টায় টিএসসির বিপরীতে ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের তালাবদ্ধ ফটকের সামনে দাঁড়িয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) পড়ুয়া এক শিক্ষার্থী আরেক শিক্ষার্থীকে উদ্দেশ্য করে কথাগুলো বলছিল।

সাধারণত শুক্রবার সরকারি ছুটির দিনে টিএসসি ও আশেপাশের আড্ডা ভেঙে শিক্ষার্থী ও ঘুরতে আসা অন্যান্যরা হল ও বাসাবাড়িতে ফিরতে থাকে। কিন্তু শুক্রবার রাত ১০টার পরও টিএসসি ও আশেপাশের এলাকায় বিপুল সংখ্যক মানুষের উপস্থিতি লক্ষ্য করা যায়। নিরাপত্তাজনিত কারণে উদ্যানের গেট বন্ধ থাকলেও অনেকেই ফুটপাত দিয়ে হেটে হেটে উদ্যানের বর্ণিল আলোকসজ্জা দেখছিলেন।
du-tsc

রাত পোহালেই জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণকে ইউনেস্কো ঐতিহাসিক দলিল হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ায় রাজধানী ঢাকাসহ দেশব্যাপী শুরু হবে বর্ণাঢ্য আনন্দ শোভাযাত্রা। এ আনন্দ শোভাযাত্রাকে সফল করতে সরকারি ও বেসরকারিভাবে ব্যাপক প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, তথ্য মন্ত্রণালয়, তথ্য অধিদফতর, শিক্ষা মন্ত্রণালয়, ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশন, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ ছাড়াও বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের এ কর্মসূচি সফল করতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

ঢাকা মেট্রোপলিট্রন পুলিশ ইতোমধ্যে আনন্দ শোভাযাত্রার রুট ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে প্রবেশপথ নির্ধারণ করে দিয়েছে। ঢাকাসহ সারাদেশেই জেলা, উপজেলা পর্যায়ে এই আনন্দ র‌্যালি অনুষ্ঠিত হবে।

শোভাযাত্রায় মুক্তিযোদ্ধা, জনপ্রতিনিধি ও রাজনৈতিক ব্যক্তি, সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী, শিশু-কিশোর, ক্রীড়া সংগঠক ও খ্যাতিমান ক্রীড়াবিদ, সাংস্কৃতিক কর্মী ও সংগঠক, শিল্পকলা একাডেমি, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট, এনজিও, স্কাউটস ও রোভারের সদস্যরা অংশ নেবেন। এ ছাড়া পুলিশের সুসজ্জিত ঘোড়া, পুলিশ, বিজিবি, আনসার ও ভিডিপি এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সুসজ্জিত বাদকদল, সুসজ্জিত ঘোড়ার গাড়ি এবং সর্বস্তরের জনগণও আনন্দ শোভাযাত্রায় থাকবেন।

রাজধানীর কলাবাগানের বাসিন্দা বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা সম্পা আক্তার স্বামী ও সন্তানদের নিয়ে টিএসসিতে এসেছিলেন। এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে জানান, প্রায় শুক্রবারই তারা সপরিবারে টিএসসিতে ঘুরতে আসেন। রাতে বাইরে কোথাও খাবার খেয়ে বাসায় ফিরেন। আগামীকালের (শনিবার) আনন্দ শোভাযাত্রা উপলক্ষে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের আলোকসজ্জা তাদেরও মন ছুঁয়ে গেছে বলে জানান।

এমইউ/আরএস