পোপ আসছেন : সোহরাওয়ার্দী উদ্যান জুড়ে শুভ্রতার আবেশ

মনিরুজ্জামান উজ্জ্বল
মনিরুজ্জামান উজ্জ্বল , বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৩:১০ পিএম, ২৯ নভেম্বর ২০১৭ | আপডেট: ০৩:২৩ পিএম, ২৯ নভেম্বর ২০১৭

বুধবার, মধ্যদুপুর। রাজধানীর ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যান জুড়ে সুনসান নীরবতা। তবে ব্যতিক্রম বাংলা একাডেমির বিপরীতে লেকের দক্ষিণ পার্শ্বের খোলা মাঠটি। উদ্যানজুড়ে মঞ্চ নির্মাণ, সামনে প্যান্ডেল, সিসিটিভি, মাইক্রোফোনসহ বিভিন্ন নিরাপত্তা ডিভাইস স্থাপনে সবাই ব্যস্ত। এ সময় নিরাপত্তারক্ষীদের মহড়া দিতেও দেখা যায়।

খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ের (ক্যাথলিক) সর্বোচ্চ ধর্মগুরু পোপ ফ্রান্সিস শনিবার (১ ডিসেম্বর) এ উদ্যানে ধর্মীয় উপাসনায় অংশগ্রহণ করবেন। তার আগমন উপলক্ষে মূল মঞ্চটি কুঁড়েঘরের আদলে তৈরি করা হয়েছে। মঞ্চের সামনে উদ্যানটির চারপাশের বাঁশের তৈরি সীমানা প্রাচীর, সাদা কাপড়ে মোড়ানো হয়েছে। এর ফলে গোটা উদ্যান জুড়ে শুভ্রতার আবেশ ছড়িয়ে পড়েছে।

সরেজমিন ঘুরে উপস্থিত লোকজনের সঙ্গে আলাপকালে জানা গেছে, শনিবার পোপ ফ্রান্সিস সকাল ১০টায় সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের শিশু পার্ক সংলগ্ন ভিআইপি গেট দিয়ে মাঠে আসবেন। বিশেষ ধরনের গাড়িতে চড়ে সমাবেশস্থলে এসে মঞ্চে উঠবেন তিনি।

পোপ ফ্রান্সিসের আগমন উপলক্ষে ক্যাথলিক বিশপ কনফারেন্স অব বাংলাদেশ (সিবিসিবি) নেতাদের সার্বিক তত্ত্বাবধানে মূল মঞ্চসহ সামগ্রিক নির্মাণ কাজ চলছে। সার্বিক নির্মাণ কাজের ডিজাইন করেছেন বুয়েটের স্থাপত্যকলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ক্যাথরিন গোমেজ।

এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, সম্পূর্ণ দেশীয় উপকরণ বাঁশ, কাঠ ও ছন দিয়ে নির্মিত হচ্ছে ৮০ ফুট দৈর্ঘ্য ও ৫০ ফুট প্রস্থের এ মঞ্চ। মূল ছাউনি যেটি কুঁড়েঘরের আদলে নির্মিত হয়েছে সেটির দৈর্ঘ্য ও প্রস্থে ৩০ ফুট বাই ২০ ফুট। এখানে দাঁড়িয়ে পোপ ফ্রান্সিস বক্তব্য দেবেন।

পোপ ফ্রান্সিসের আগমন উপলক্ষে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের চৌহদ্দি জুড়ে কঠোর নিরাপত্তা বলয় গড়ে তোলার কাজ চলছে। ১ ডিসেম্বর প্রায় এক লাখ খ্রিষ্টানভক্তের সমাবেশ ঘটবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানিয়েছে, ঘোষিত সূচি অনুযায়ী ৩০ নভেম্বর থেকে ২ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাংলাদেশে অবস্থান করবেন পোপ ফ্রান্সিস।

এমইউ/জেএইচ/জেআইএম