ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠায় আয়কর কার্যকরী মাধ্যম : রাষ্ট্রপতি

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:১১ পিএম, ২৯ নভেম্বর ২০১৭ | আপডেট: ০৩:২৬ পিএম, ২৯ নভেম্বর ২০১৭
ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠায় আয়কর কার্যকরী মাধ্যম : রাষ্ট্রপতি
ফাইল ছবি

আয়কর শুধু রাজস্ব আহরণের প্রধান খাত নয়, এটি অর্থনৈতিক ও সামাজিক ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠার জন্য কার্যকরী মাধ্যম বলে জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। ‘জাতীয় আয়কর দিবস’ উপলক্ষে বুধবার বাণীতে রাষ্ট্রপতি এ কথা বলেন।

জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের উদ্যোগে ৩০ নভেম্বর জাতীয় আয়কর দিবস পালিত হতে যাচ্ছে জেনে সন্তোষ প্রকাশ করে রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘দিবসটির প্রাক্কালে সব করদাতা এবং কর বিভাগের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবাইকে আমি আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাই।

পৃথিবীর সব উন্নত রাষ্ট্রে প্রত্যক্ষ কর বা আয়কর রাজস্ব আয়ের প্রধান মাধ্যম হিসেবে বিবেচিত হয় উল্লেখ করে আবদুল হামিদ বলেন, রূপকল্প-২০২১ এবং রূপকল্প-২০৪১ এর পথ ধরে সুখী-সমৃদ্ধ ও উন্নত বাংলাদেশ গড়ার লক্ষে সরকার ব্যাপক উন্নয়ন পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে।

তিনি বলেন, এসব উন্নয়ন কর্মকাণ্ড বাস্তবায়নের জন্য অভ্যন্তরীণ সম্পদ আহরণ বৃদ্ধি করতে হবে। এক্ষেত্রে আয়কর প্রদানকারীর সংখ্যা এবং আয়কর খাতে রাজস্ব আহরণ বৃদ্ধির বিকল্প নেই।

রাষ্ট্রপতি বলেন, আয়কর নিয়ে সচেতনতার অভাবে দেশের জনগণের মধ্যে এক ধরনের ভীতি কাজ করে। আয়কর সম্পর্কে জনসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষে আয়কর বিভাগ বিগত বছরে জাতীয় আয়কর দিবস উদযাপন, আয়কর মেলা ও আয়কর সপ্তাহ আয়োজনসহ বিভিন্ন উদ্ভাবনীমূলক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

এছাড়া আয়কর প্রদানকারীদেরকে ট্যাক্স কার্ড, পুরস্কার ও স্বীকৃতি প্রদানের ফলে জনগণ আয়কর প্রদানে আরও উৎসাহিত হবে বলেও তিনি মনে করেন।

এইচএস/এমআরএম/এমএস