শওকত আলীর পাশে ফকির আলমগীর

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৮:১১ পিএম, ০৯ জানুয়ারি ২০১৮ | আপডেট: ০৮:২৮ পিএম, ০৯ জানুয়ারি ২০১৮

রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে থাকা কথাসাহিত্যিক শওকত আলীকে দেখতে গেছেন প্রখ্যাত সঙ্গীত শিল্পী ফকির আলমগীর। মঙ্গলবার তাকে দেখতে যাওয়ার কথা নিজের ফেসবুক স্ট্যাটাসে জানান তিনি।

সেখানে ফকির আলমগীর লিখেছেন, ‘দেখে এলাম ল্যাবএইড এ লাইফ সাপোর্ট এ থাকা আমার প্রিয় শিক্ষক প্রখ্যাত কথাসাহিত্যিক শওকত আলীকে। এখনও তিনি শঙ্কামুক্ত নন, আমি তার আরোগ্য কামনা করছি...’

এদিকে ফুসফুসের সংক্রমণে গুরুতর অসুস্থ কথাসাহিত্যিক শওকত আলী ল্যাবএইড হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের চিকিৎসক অধ্যাপক সমীরণ চক্রবর্তীর তত্ত্বাবধানে আছেন। একুশে পদকপ্রাপ্ত এ সাহিত্যিককে গত বৃহস্পতিবার রাতে আইসিইউতে স্থানান্তরের পর এ পর্যন্ত তার অবস্থা অপরিবর্তিত রয়েছে।

শওকত আলীর বড় ছেলে চিকিৎসক আরিফ শওকত পল্লব জানান, কৃত্রিম শ্বাসপ্রশ্বাসের যন্ত্রটি খুলে নেয়ার পর নিজে থেকে দু-একবার শ্বাসপ্রশ্বাস নিয়েছিলেন তার বাবা। কিন্তু পুরোপুরি খুলে দেয়া হয়নি শ্বাসপ্রশ্বাসের যন্ত্রটি। লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে। তাকে শঙ্কামুক্ত বলা যাবে না।

১৯৩৬ সালের ১২ ফেব্রুয়ারি ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের উত্তর দিনাজপুর জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। ছাত্রজীবনে কমিউনিস্ট আন্দোলনে জড়িয়ে পড়েন তিনি এবং সাংবাদিক হিসেবে কর্মজীবন শুরু করলেও পরে শিক্ষকতায় যোগ দেন।

তিনি বিংশ শতাব্দীর শেষভাগে স্বাধীনতা-উত্তর বাংলাদেশে গল্প ও উপন্যাস লিখে খ্যাতি অর্জন করেন। কথাসাহিত্যে অবদানের জন্য ১৯৯০ সালে একুশে পদক পান শওকত আলী। পরে বাংলা একাডেমি পুরস্কার, হুমায়ুন কবির স্মৃতি পুরস্কার, অজিত গুহ স্মৃতি সাহিত্য পুরস্কার পান।

শওকত আলী ‘ওয়ারিশ’ উপন্যাসে ব্রিটিশ শাসনামল, দেশভাগ আর হিন্দু-মুসলিম দাঙ্গার মর্মন্তুদ ছবি এঁকেছেন। তার বিখ্যাত ‘প্রদোষে প্রাকৃতজন’ উপন্যাসে তিনি সমাজের নিম্নবর্গের মানুষের কথা বলেছেন।

এসএইচএস/আইআই

আপনার মতামত লিখুন :