বিমানবন্দর সড়ক পুরোপুরি বন্ধ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:৩২ পিএম, ১০ জানুয়ারি ২০১৮ | আপডেট: ০৪:৪০ পিএম, ১০ জানুয়ারি ২০১৮

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর সড়কে বসে গেছেন মূসল্লিরা। এতে এ সড়কে যানচলাচল পুরোপুরি বন্ধ রয়েছে।

বুধবার বিকেল ৪টার দিকে তারা সড়কে বসে পড়েন। ফলে ঢাকা-ময়মনসিংহ রোডে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। চরম দুর্ভোগে পড়েছেন হাজার হাজার যাত্রী।

মাওলানা সাদ কান্ধলভীকে ঠেকাতে এর আগে থেকেই বিমানবন্দর একালায় বিক্ষোভ শুরু করেন হাজার হাজার আলেম ওলামা।

সরেজমিনে দেখা গেছে, রাজধানী বিমানবন্দর একালায় ময়মনসিংহগামী সড়কের হাজার হাজার আলেম ওলামা বিক্ষোভ করছেন। ব্যস্ততম এ সড়কে বিক্ষোভের ফলে যান চলাচল প্রায় বন্ধ হয়ে গেছে। যানজট ঠেকেছে কুড়িল বিশ্বরোড থেকে আব্দুল্লাহপুর পর্যন্ত। সড়কে উভয় পাশে যান চলাচল বন্ধ হওয়ায় চরম বিপাকে পড়েছেন হাজার হাজার যাত্রী। অনেকে উপায় না পেয়ে হেঁটেই রওয়ানা দিয়েছেন।

রাজধানীর খিলক্ষেত এলাকায় কয়েক হাজার যাত্রী লাগেজ ও ব্যাগ নিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন। তবে কোনো যাত্রীবাহী বাসের দেখা নেই। এমনকি সিএনজিচালিত অটোরিকশা বা প্রাইভেটকারও চলছে না। তবে এখনও হেঁটেই বিক্ষোভ কর্মসূচিতে যোগ দিচ্ছেন আলেম ওলামারা।

Biman1

জয়নাল আবেদীন নামের একজন বলেন, ‘আমি উত্তরা থেকে সদরঘাটের বাসে ওঠেছিলাম। তবে ৪০ মিনিট বাসের মধ্যেই বসে থেকে পড়ে নেমে পড়ছি। এখন মাথায় বোঝা (ব্যাগ) নিয়ে হেঁটেই যাচ্ছি।’

অনন্ত দাস নামের আরও একজন বলেন, ‘ঢাকা আসবো বলে বাসে ওঠেছিলাম। আব্দুল্লাহপুর ২ ঘণ্টা বসে থেকে হেঁটে রওয়ানা দিয়েছি। জানি না ঢাকায় কখন পৌঁছব।’

সূত্রে জানা গেছে, বিদেশ থেকে আগত যাত্রীরা কাঙ্ক্ষিত যানবাহন না পেয়ে চরম বিপাকে পড়েছেন। তারা বিমানবন্দরের ভেরতেই অবস্থান করছেন। এছাড়া বিদেশগামী যাত্রীদের লাগেজ নিয়ে দৌড়ে ছুটে চলতেও দেখা গেছে।

এদিকে দিল্লির নিজামুদ্দিন মারকাজের জিম্মাদার মাওলানা মোহাম্মদ সাদ কান্ধলভি শাহজালাল বিমানবন্দরে পৌঁছেছেন। বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে থাই এয়ারওয়েজের একটি ফ্লাইটে ব্যাংকক থেকে শাহজালাল বিমানবন্দরে পৌঁছান তিনি।

বিমানবন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নূরে আযম মিয়া জাগো নিউজকে বলেন, আপাতত তাকে ইজতেমা মাঠে নেয়া হবে না। তিনি বিমানবন্দরের ভেতরেই থাকবেন।

বিক্ষোভ কর্মসূচি সম্পর্কে তিনি বলেন, তবলীগের নেতাদের শান্তিপূর্ণভাবে সমাবেশ শেষ করার অনুরোধ জানানো হয়েছে।

এআর/জেডএ/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :