উন্নয়ন মেলায় আবহাওয়াবিদদের কাছে দর্শনার্থীদের নানা প্রশ্ন

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৮:৪০ এএম, ১২ জানুয়ারি ২০১৮ | আপডেট: ০৮:৪৩ এএম, ১২ জানুয়ারি ২০১৮

‘সূর্য়ের তাপমাত্রা কত ডিগ্রী সেলসিয়াস, আপনাদের কি কোনো ধারনা আছে? তাপমাত্রা মাপতে গেলে পুড়ে ছাই হয়ে যাবো।আমরা কিন্তু সূর্য়ের তাপমাত্রা মাপি না, বাতাসের তাপমাত্রা মাপি। আপনারা যদি আবহাওয়া অফিসে আসেন তবে দেখবেন একটা বাক্স আছে। সেই বাক্সের ভেতর থার্মোমিটার বসানো থাকে এবং বাক্সটার ভেতরে খাঁচ কাটা খাঁচ কাটা ফাঁকা থাকে। আমরা যখন অবজারভেশন নেই তখন নির্দিষ্ট দূরত্বে দাঁড়িয়ে নেই যাতে শরীরের তাপমাত্রা থার্মোমিটার পর্য়ন্ত না পৌঁছায়।’

বর্তমান সরকারের চার বছর পূর্তি উপলক্ষে শিল্পকলা একাডেমিতে সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের উন্নয়ন সাফল্য তুলে ধরতে তিনদিনব্যাপী উন্নয়ন মেলা শুরু হয়েছে। প্রথমদিন বৃহস্পতিবার বিকেলে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতরের স্টলের ভেতর দাঁড়িয়ে সহকারী পরিচালক তাসলিমা ইমাম ঠিক এভাবেই বাতাসের সাহায্যে কীভাবে তারা তাপমাত্রা পরিমাপ করেন সে সম্পর্কে উপস্থিত দর্শনার্থীদের অবহিত করছিলেন।

fair

এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে তিনি জানান, আবহাওয়া অধিদফতরে তার চাকরির মেয়াদ ২৫ বছর হয়ে গেছে। আগের তুলনায় আবহাওয়া অধিদফতর অনেক উন্নত হয়েছে। মেলায় আগত দর্শনার্থীদের আবহাওয়া সম্পর্কে জানতে দারুণ আগ্রহ। তারাও দর্শনার্থীদের তাদের বিভিন্ন কার্য়ক্রম সম্পর্কে জানাতে পেরে খুবই আনন্দিত বলে জানান।

তিনি বলেন, মোবাইল ফোনে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতরের বিএমডি ওয়েদার অ্যাপস ডাউনলোডের মাধ্যমে যে কোনো সময় দেশের ৪২টি স্থানের সর্বশেষ আবহাওয়া তথ্য জানা যাবে।

মেলায় আসা দর্শনার্থীদেরকে ভূমিকম্প, ঘূর্ণিঝড়, বজ্রপাত ও চরম আবহাওয়াজনিত দুর্য়োগ সম্পর্কিত তথ্যউপাত্ত সম্বলিত তথ্যউপাত্ত লিফলেট প্রদানের পাশাপাশি সচেতন করে তুলতে ব্রিফ করেন আবহাওয়া অধিদফতরের কর্মীরা।

এমইউ/এমবিআর/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :