অমর একুশ উদযাপনের প্রস্তুতি সম্পন্ন

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১০:০৪ পিএম, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

বাঙালির জাতীয় চেতনার প্রতীক অমর একুশে ফেব্রুয়ারি মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপনের যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে এর ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে থাকা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।

দিবসটি পালনে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এবং আজিমপুর কবরস্থানে সর্বস্তরের জনসাধারণের শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য যাবতীয় অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি অত্যন্ত নিষ্ঠার সঙ্গে পালন করে আসছে দেশসেরা বিদ্যাপীঠটি।

সোমবার এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, একুশে উদযাপনের যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। এ বছরও যথাযোগ্য মর্যাদার সঙ্গে দিবসটি পালনের জন্য প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণের উদ্দেশ্যে একটি শক্তিশালী ‘কেন্দ্রীয় সমন্বয় কমিটি’ এবং বিভিন্ন সাব-কমিটি গঠন করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় সমন্বয় কমিটি দিবসটি সুষ্ঠুভাবে পালনের বিস্তারিত কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। রাষ্ট্রাচার অনুযায়ী একুশের প্রথম প্রহরে পুস্পার্ঘ্য অর্পণের উদ্দেশ্যে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের বেদীমূল প্রস্তুত করা হয়েছে।

মহান একুশের ভাবগাম্ভীর্য ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনাম অক্ষুণ্ন রাখার স্বার্থে সমন্বয় কমিটি কর্তৃক গৃহীত সকল কর্মসূচির সফল বাস্তবায়নে উপাচার্য সংশ্লিষ্ট সকলের সর্বাত্মক সহযোগিতা কামনা করেছেন।

ইতোমধ্যে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ও আজিমপুর কবরস্থানে যাতায়াতের জন্য একটি রুট-ম্যাপও প্রকাশ করা হয়েছে। তা যথাযথভাবে অনুসরণ করার জন্য কমিটির পক্ষ থেকে সকলের প্রতি অনুরোধ জানানো হয়েছে।

অমর একুশে উপলক্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্য কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে- রাষ্ট্রাচার অনুযায়ী একুশের প্রথম প্রহরে পুস্পার্ঘ্য অর্পণ, ২১ ফেব্রুয়ারি বুধবার সকাল সাড়ে ৬টায় উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামানের নেতৃত্বে অপরাজেয় বাংলার পাদদেশ থেকে প্রভাতফেরি আজিমপুর কবরস্থান হয়ে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পণ। বাদ জোহর অমর একুশে হলে শহীদদের রুহের মাগফেরাত কামনায় বিশেষ মোনাজাত, বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদ, সকল হলের মসজিদ এবং বিশ্ববিদ্যালয় আবাসিক এলাকার মসজিদসহ অন্যান্য ধর্মীয় উপাসনালয়ে ভাষাশহীদদের রুহের মাগফেরাত/ আত্মার শান্তি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত/প্রার্থনার আয়োজন করা হয়েছে।

এমএইচ/এমবিআর/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :