দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:০২ পিএম, ১৪ মার্চ ২০১৮

বেতন-ভাতা রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে দেয়ার ঘোষণা না আসা পর্যন্ত আন্দোলন চলবে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ পৌরসভা সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন।

বুধবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বাংলাদেশ পৌরসভা সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন ব্যানারে সড়ক অবরোধ করে অবস্থান কর্মসূচি পালন করা হয়। দাবি আদায়ে দেশের ৩২৭টি পৌরসভা কর্মীরা গত ১০ মার্চ থেকে প্রেস ক্লাবের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন।

আবু তালেব নামের এক আন্দোলনকারী বলেন, টাঙ্গাইলের সখীপুর পৌরসভায় ড্রাইভার হিসেবে ৯ বছর ধরে কাজ করছি। প্রায় অতিরিক্তি সময় কাজ করতে হয়। বিনিময়ে কোনো বাড়তি টাকা দেয়া হয় না। পৌরসভার মেয়ররা সরকারের কাছ থেকে বেতনের টাকা ঠিকই আনে কিন্তু আমাদের দেয় না। অতিরিক্তি সময় কাজ করতে হয় কিন্তু মজুরী চাইলে চাকরি খাওয়ার হুঁমকি দেয়। আমরা খুবই মানবেতর জীবনযাপন করছি। তাই বাধ্য হয়ে আন্দোলনে নেমেছি।

আরেক আন্দোলনকারী শাহাবউদ্দীন বলেন, আমাদের কোনো পেনশন নেই। তাই ভবিষৎ নিয়ে অনিশ্চয়তায় আছি। পৌরসভার কর্মকর্তা কর্মচারীদের পেনশনসহ অন্যান্য সুবিধাদি রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে প্রাপ্তির মত ন্যায্য দাবি আদায়ে অবস্থান করছি।

কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সভাপতি আব্দুল আলিম মোল্লা, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, সহ-সভাপতি আব্দুস সাত্তার, যুগ্ম সম্পাদক মুজাহিদুল ইসলাম তুষার, সাংগঠনিক সম্পাদক বাবুল হোসেন প্রমুখ।

অন্যদিকে শিক্ষাব্যবস্থা জাতীয়করণসহ ১১ দফা দাবিতে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে রাস্তা অবরোধ করে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছে শিক্ষক-কর্মচারী সংগ্রাম কমিটি। সংগঠনটির সভাপতি আবু বক্কর সিদ্দিকীর সভাপতিত্বে দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে শিক্ষকরা এ কর্মসূচিতে অবস্থান নিয়েছে।

এক সঙ্গে দুই সংগঠনের কর্মসূচির কারণে প্রেস ক্লাবের সামনের রাস্তায় যানচলাচল বন্ধ রয়েছে। এতে পল্টন থেকে শাহবাগগামী বাসগুলো বিকল্প পথে চলাচল করছে। ফলে দুর্ভোগে পড়েছেন সাধারণ যাত্রীরা।

এএস/এসআই/এএইচ/আরআইপি