‘ক্ষুধা থেকে মুক্তির জন্য খাদ্য উৎপাদন দ্বিগুণ করতে হবে’

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৪৭ পিএম, ২৮ মার্চ ২০১৮

ক্ষুধা থেকে মুক্তির জন্য দেশের খাদ্য উৎপাদন দ্বিগুণ করতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন কৃষি মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব মোহাম্মদ মঈন উদ্দীন আবদুল্লা।

তিনি বলেন, টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিতের জন্য সমন্বিতভাবে কাজ করতে হবে। কাউকে পিছিয়ে রেখে উন্নয়নকে টেকসই করা যাবে না। পাশের বাসায় অভাবী লোক রেখে আপনিও নিরাপদ থাকতে পারবেন না।

মঙ্গলবার রাজধানীর খামার বাড়ির আ কা মু গিয়াস উদ্দীন মিলকী অডিটরিয়ামে ‘এসডিজি (টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য) বাস্তবায়নে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের ভূমিকা ও করণীয়’ শীর্ষক দিনব্যাপী সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে তিনি এ কথা বলেন। সেমিনারের আয়োজন করে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর।

এসডিজি অর্জনের তাগিদ দিয়ে তিনি বলেন, এসডিজির লক্ষ্য অনুযায়ী সমাজের সব ধরনের দারিদ্র্য বিলোপ এবং ক্ষুধা থেকে মুক্তির জন্য

দেশের খাদ্য উৎপাদন দ্বিগুণ করতে হবে। এ জন্য কৃষির সম্প্রসারণ ও গবেষণার কাজকে উন্নত এবং গতিশীল করতে হবে।

সরকারের কার্যকর উদ্যোগে মিলেনিয়াম ডেভেলপমেন্ট গোল (এমডিজি) বাস্তবায়নের সাফল্যে ৪৭ বছরে বাংলাদেশে ধান উৎপাদন বেড়েছে তিন গুণ এবং শাক-সবজি ও ফলের
উৎপাদন বেড়েছে দ্বিগুণ।

তামাক চাষের বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে সচিব বলেন, কৃষকরা স্বাধীন। সরকার তাদের স্বাধীনতা হরণ করতে পারে না এবং করেনি। কৃষকের দায় পড়েনি ক্রমাগত লোকসান দিয়ে ধান চাষ করবে। বিকল্প না দিয়ে কৃষককে তামাক চাষ না করার জন্য বাধ্য করা যাবে না। তামাক চাষ সরকার বাতিল করেনি। তামাক চাষের জন্য সরকার কোনো রকমের সহায়তা ও উৎসাহ দিচ্ছে না। বরং সরকার নানা প্রচেষ্টার কারণে তামাকের চাষ কমেছে।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের মহাপরিচালক কৃষিবিদ মোহাম্মদ মহসীনের সভাপতিত্বে সেমিনারে আরও বক্তব্য দেন- কৃষি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মোহাম্মদ নজমুল ইসলাম, হর্টিকালচার উইংয়ের পরিচালক মিজানুর রহমান।

সেমিনারে উপস্থিত ছিলেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের আঞ্চলিক ও জেলা পর্যায়ের কর্মকর্তারা।

এমএ/এএইচ/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :