স্যার আমাকে বড় অস্ত্র ধরতে দেয় না!

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:১৫ পিএম, ১৭ এপ্রিল ২০১৮
স্যার আমাকে বড় অস্ত্র ধরতে দেয় না!

সেক্টর কমান্ডারস ফোরামের চেয়ারম্যান ও সাবেক সেনাপ্রধান কে এম সফিউল্লাহ নয় মাসের মুক্তিযুদ্ধের এক স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে বলেন, যুদ্ধ চলাকালীন ১০ থেকে ১২ বছরের এক বাচ্চা আমাকে এসে বলে, ‘ স্যার, আমাকে ট্রেনিং দেন, যুদ্ধ করবো।’ আমি বললাম, তুমি ছোট পারবে না। সে বললো, ‘স্যার, আমি পারবো।’ আমি এক অফিসারকে ডেকে বললাম, ওকে ছোট অস্ত্র দিয়ে ট্রেনিং দাও। কিছুদিন পর ওই বাচ্চাটি এসে বললো, স্যার আমাকে বড় অস্ত্র ধরতে দেয় না। যুদ্ধ চলাকালীন সময়ে ওই ছোট ছেলেটি আমাদের এক অফিসারকে শত্রুর হাত থেকে বাঁচিয়েছিল।

তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধ একক অর্জন নয়। এটি কেউ হাতে তুলে এনে দেয়নি। কঠিনভাবে অর্জন করা হয়েছে। যেখানে নারী-পুরুষ-শিশু সবাই সহযোগিতা করেছে।

মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘ইতিহাসের আলোকে ১৭ এপ্রিল ১৯৭১’ শীর্ষক আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন তিনি। সেক্টর কমান্ডারস ফোরামের-মুক্তিযুদ্ধ '৭১ আলোচনা সভার আয়োজন করে।

আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন প্রেসক্লাবের সভাপতি শফিকুর রহমান, স্থপতি মোবাশ্বের হোসেন, সাবেক রাষ্ট্রদূত সোরহাব হোসেন, ফোরামের নেতা আবুল কালাম আজাদ পাটোয়ারী প্রমুখ।

আলোচকরা বলেন, ১৯৫২ থেকে ৭১ সাল পর্যন্ত ঐতিহাসিক দিনগুলোর চূড়ান্ত রূপ নেয় ১৭ এপ্রিল মুজিব নগর সরকারের শপথ। এ ১৭ এপ্রিল আমাদের মুক্তিযদ্ধের প্রেরণা দেয়। যার মাধ্যমে দেশ-বিদেশে আমাদের নতুন পরিচয় ঘটে। মুজিব নগর সরকারই নতুন বাংলাদেশ গঠন করে। তাই এ ১৭ এপ্রিলের ইতিহাস তরুণ ও ছাত্র সমাজের কাছে তুলে ধরতে হবে।
নতুন প্রজম্মের মুক্তিযুদ্ধের প্রতি বেশ আগ্রহ। তারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারণ করে। তাই সঠিক ইতিহাস জানাতে হবে।

এ বিষয়ে সেক্টর কমান্ডারস ফোরামকে উদ্যোগ নেয়ার আহ্বান জানান বক্তারা।

এসআই/এএস/এসআর/এমএস