সুপ্রিম কোর্ট মাজার মসজিদে রাজীবের প্রথম জানাজা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৩৩ পিএম, ১৭ এপ্রিল ২০১৮

রাজধানীতে দুই বাসের রেষারেষিতে হাত হারানো এবং চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যাওয়া তিতুমীর কলেজের শিক্ষার্থী রাজীব হোসেনের প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার বাদ জোহর সুপ্রিম কোর্টের মাজার মসজিদের ভেতরে এ জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

নিহত রাজীবের প্রথম জানাজা শেষে পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার বাঁশবাড়ি গ্রামের বাড়ি নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে বাবা-মায়ের কবরের পাশে রাজীবের মরদেহ দাফন করা হবে।

এর আগে দুই বাসের চাপায় হাত হারানো রাজীবকে সোমবার দিনগত রাতে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। ১৩ দিন পর মৃত্যু কোলে ঢলে পড়া রাজীব হোসেন মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণের কারণে মারা গেছেন বলে জানান ঢামেক হাসপাতালের ফরেনসিক মেডিসিন বিভাগের প্রভাষক ডা. প্রদ্বিপ বিশ্বাস।

গত ৩ এপ্রিল দুপুরে রাজধানীর কাওরান বাজারের সার্ক ফোয়ারার কাছে বিআরটিসির একটি দ্বিতল বাসের পেছনের ফটকে দাঁড়িয়ে গন্তব্যের উদ্দেশে যাচ্ছিলেন সরকারি তিতুমীর কলেজের স্নাতক দ্বিতীয়বর্ষের ছাত্র রাজীব হোসেন। বাসটি হোটেল সোনারগাঁওয়ের বিপরীতে পান্থকুঞ্জ পার্কের সামনে পৌঁছালে হঠাৎ পেছন থেকে স্বজন পরিবহনের একটি বাস বিআরটিসির বাসটিকে গা ঘেঁষে অতিক্রম করে।

এ সময় দুই বাসের প্রবল চাপে গাড়ির পেছনে দাঁড়িয়ে থাকা রাজীবের ডান হাত কনুইয়ের ওপর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এ তার মাথায়ও প্রচণ্ড আঘাত লাগে। দুর্ঘটনার পর তাকে প্রথমে শমরিতা হাসপাতালে ও পরে ঢামেক হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়। গত মঙ্গলবার (১০ এপ্রিল) ভোর পৌনে ৪টায় অজ্ঞান হয়ে যান রাজীব। এরপর থেকে লাইফ সাপোর্টে ছিলেন তিনি।

এফএইচ/আরএস/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :