পেনশনসহ সকল সুবিধা মন্ত্রণালয়ের অধীনে চান মুক্তিযোদ্ধার সন্তানরা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৪২ পিএম, ২১ এপ্রিল ২০১৮ | আপডেট: ০৩:৪২ পিএম, ২১ এপ্রিল ২০১৮
পেনশনসহ সকল সুবিধা মন্ত্রণালয়ের অধীনে চান মুক্তিযোদ্ধার সন্তানরা

মহান মুক্তিযোদ্ধারা ছিলেন প্রবাসী সরকারের প্রথম সেনাবাহিনী এ কারণে তাদের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে নিয়ে পেনশন, বোনাস, রেশনসহ মন্ত্রণালয়ের সকল সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করতে হবে বলে দাবি করেছেন আমরা মুক্তিযোদ্ধা সন্তানরা।

শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আয়োজিত এক গণসমাবেশে কেন্দ্রীয় কমিটির নেতৃবৃন্দরা এই দাবি জানান।

গণসমাবেশে মুক্তিযোদ্ধার সন্তানরা ৯দফা দাবি তুলে ধরেন। দাবিগুলো হলো-

১) জাতির পিতা, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটুক্তিকারীদের শাস্তি দিতে হবে।

২) বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সাংবিধানিক স্বীকৃতিসহ বীর মুক্তিযোদ্ধা সুরক্ষা আইন করতে হবে।

৩) ৩০% মুক্তিযোদ্ধা কোটা বহাল রেখে তা বাস্তবায়নে কমিশন গঠন করে প্রিলিমিনারী থেকে কোটা শতভাগ বাস্তবায়ন করতে হবে।

৪) মুক্তিযোদ্ধা কোটায় চলমান সকল নিয়োগ কার্যক্রম অব্যাহত রাখাসহ সকল মন্ত্রণালয় ও বিভাগের কোটার শূন্য পদ সংরক্ষণ করে বিশেষ নিয়োগের মাধ্যমে পূরণ করতে হবে।

৫) ১৯৭২ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত ৩০% মুক্তিযোদ্ধা কোটায় শূন্য পদগুলোতে চলতি বছরেই নিয়োগ দিতে হবে।

৬) বীর মুক্তিযোদ্ধারা ছিলেন প্রবাসী সরকারের প্রথম সেনাবাহিনী। এ কারণে তাদের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে নিয়ে পেনশন, বোনাস, রেশনসহ মন্ত্রণালয়ের সকল সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করতে হবে।

৭) রাষ্ট্রের নিরাপত্তার স্বার্থে স্বাধীনতা বিরোধীদের সম্পদ বাজেয়াপ্ত করাসহ স্বাধীনতা বিরোধীদের উত্তরসূরীদের সকল চাকুরিতে অযোগ্য ঘোষণা করতে হবে এবং স্বাধীনতা বিরোধী জামায়াত-শিবিরকে নিষিদ্ধ করতে হবে।

৮) ঢাবি ভিসির বাসভবনে হামলাসহ দেশব্যাপী নৈরাজ্য সৃষ্টিকারী স্বঘোষিত রাজাকারদের কঠোর শাস্তি দিতে হবে এবং সকলের জন্য চাকুরিতে প্রবেশের বয়সসীমা তুলে দিতে হবে।

এফএইচ/এসআর/আরআইপি