তারিখ পরিবর্তন করে কোমল পানীয় বিক্রি : দুইজনকে কারাদণ্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:০৯ পিএম, ১৭ মে ২০১৮ | আপডেট: ০২:১৬ পিএম, ১৭ মে ২০১৮

 

অধিকাংশ ভোক্তা দেশি-বিদেশি বিভিন্ন ব্রান্ডের কোমল পানীয় কেনেন মেয়াদোত্তীর্ণের তারিখ দেখে। তবে অবৈধভাবে মেয়াদোত্তীর্ণের তারিখ বদলে নতুন তারিখ দেয়া ভেজাল পণ্যও বিক্রি হচ্ছে বাজারে।

এমন জালিয়াতির মাধ্যমে বিক্রির উদ্দেশে দিদার অ্যান্ড ব্রাদার্স নামে এক আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানের মজুদ পণ্য জব্দ করেছে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বুধবার রাত ১টা থেকে বৃহস্পতিবার ভোর পর্যন্ত রাজধানীর পুরান ঢাকার বেগম বাজারে পরিচালিত অভিযানে এমন তথ্য পায় র‌্যাব। অভিযানে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম।

তিনি জানান, ‘কিছু মানুষ মাত্রাতিরিক্ত মুনাফার জন্য কত ধরনের যে অপকর্ম করে, তা ভেজালবিরোধী অভিযানের কর্মী না হলে হয়তো বুঝতেই পারতাম না’।

তিনি বলেন, ‘আমদানিকৃত পণ্যের মেয়াদোত্তীর্ণ হয়েছে ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারিতে। অথচ সে পণ্যের তারিখ পরিবর্তন করে উৎপাদনের তারিখ করা হয়েছে ২০১৭ সালের জুলাই আর মেয়াদোত্তীর্ণ ২০১৯ সালের ডিসেম্বর মাসে‘। অর্থাৎ মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে ২ বছর ১০ মাস। পণ্যগুলো হচ্ছে মালয়েশিয়া থেকে আমদানি করা বিভিন্ন ব্র্যন্ডের কোমল পানীয় যেমন রেডবুল, মিরিন্ডা, এটলাস ইত্যাদি।

jagonews24

বুধবার রাত ১০টা থেকে আজ ভোর ৪টা পর্যন্ত রাজধানীর পুরানো কেন্দ্রীয় কারাগারের পার্শ্ববর্তী বেগমবাজার এলাকায় অভিযান চালায় র‌্যাব। এ সময় অভিনব প্রতারণার ঘটনা ধরা পরে, জব্দ করা হয় ২৪ হাজার কোমল পানীয়র ক্যান।

অভিযানকালে দিদার অ্যান্ড ব্রাদার্সের মালিক খালেদ মাহমুদ ও আবু সাঈদ রাজ কেউই পণ্যের মেয়াদোত্তীর্ণের তারিখ অবৈধভাবে পরিবর্তন সম্পর্কে সদুত্তর দিতে না পারায় তাদের ২ বছর করে কারাদণ্ড দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

জেইউ/এমএমজেড/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :