স্যাটেলাইট লাইসেন্স পেতে বিসিএসসিএলের আবেদন

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬:৫৩ পিএম, ১৭ মে ২০১৮

স্যাটেলাইটের লাইসেন্স প্রদানে কোনো নীতিমালা না থাকলেও লাইসেন্সের জন্য আবেদন করেছে বাংলাদেশ কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেড-বিসিএসসিএল। প্রাথমিকভাবে বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইটের লাইসেন্স পেতে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের-বিটিআরসি'র কাছে আবেদন করেছে সংস্থাটি।

গত সপ্তাহে লাইসেন্স পেতে কমিশনের কাছে এ আবেদন করে বিসিএসসিএল। এখনও আবেদনের বিপরীতে কোনো চিঠি ইস্যু করেনি বিটিআরসি।

বিটিআরসি সূত্রে জানা গেছে, এখন পর্যন্ত লাইসেন্সের নীতিমালা তৈরি হয়নি। এ করাণে লাইসেন্স দেয়ার বিষয়ে কিছুই বলা যাচ্ছে না।

‘লাইসেন্স পেতে ঠিক কী হিসাবে এবং কী পরিমাণ ফি গুণতে হবে সেটাও বলা যাচ্ছে না। তবে এককালীন একটা ফি থাকতে পারে যার মূল্য এখনও ধার্য হয়নি, আবার বার্ষিক ফিও থাকতে পারে।’

জানা গেছে, এসব ক্ষেত্রে রেভিনিউ শেয়ারিং থাকে ৫ দশমিক ৫ শতাংশ এবং ১ শতাংশ থাকে সোশ্যাল অবলিগেশন ফান্ডে (এসওএফ) ।

বিটিআরসি'র জনসংযোগ কর্মকর্তা সামিউল খান জাকির এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘বিষয়টি আমিও জেনেছি, কিন্তু বিস্তারিত কিছু এখনও বলা যাচ্ছে না।’

‘আবেদনের বিষয়টি কমিশনের পরবর্তী বৈঠকে উঠবে। এরপরে অনুমোদনের জন্য সরকারের কাছে যাবে।’

ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এ প্রসঙ্গে জাগো নিউজকে বলেন, ‘স্যাটেলাইটের লাইসেন্স কাউকেই দেয়া হয়নি। কোনো প্রতিষ্ঠান লাইসেন্সের জন্য আবেদন করেছে বলে আমার জানা নাই। এ বিষয়ে আমাদের কিছু বলা ঠিক হবে না।’

‘বিসিএসসিএল আবেদন করে থাকলে এবং সরকার এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত দিলে হয়তো আরও আবেদন আসতে পারে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আগামী তিন মাসের মধ্যে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ এর বাণিজ্যিক ব্যবহার শুরু হবে। তারপর এসব বিষয়ে চিন্তা করা হবে।’

প্রসঙ্গত, ১১ মে দিবাগত রাত ২টা ১৪ মিনিটে মহাকাশে উড়াল দেয় বঙ্গবন্ধু-১। এর আগে বৃহস্পতিবার রাত ৩টা ৪৭ মিনিটে ফ্লোরিডার কেনেডি স্পেস সেন্টারের লঞ্চ প্যাড-৩৯ এ থেকে কক্ষপথে উড়াল দেয়ার প্রক্রিয়া শুরু হলেও শেষ মুহূর্তে গ্রাউন্ড সিস্টেমে সমস্যা দেখা দেয়ায় তা বাতিল করা হয়।

পুনর্নিধারিত সময়ে ফ্যালকন-৯ রকেটের নতুন সংস্করণ ব্লক ফাইভ বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটকে নিয়ে রওনা হয় নিজস্ব কক্ষপথে। ফ্লোরিডার কেনেডি স্পেস সেন্টারের লঞ্চ প্যাড ৩৯ এ থেকে মহাকাশের বুকে লাল সবুজের পদচিহ্ন আঁকতে ছুটে যায় বঙ্গবন্ধু-১।

আরএম/এমএআর/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :