ফৌজদারি মামলায় চার্জশিট না হওয়া পর্যন্ত জামিনে রাখার সুপারিশ

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:০৬ পিএম, ১২ আগস্ট ২০১৮

ফৌজদারি মামলায় অভিযোগপত্র (চার্জশিট) না হওয়া পর্যন্ত আসামিদের জামিনে রাখার সুপারিশ করেছে সংসদীয় কমিটি।

এ ধরনের মামলায় চার্জশিট দাখিলের পূর্ব পর্যন্ত আসামি জামিনে থাকবেন সেই প্রেক্ষিতে আইন করারও সুপারিশ করে কমিটি।

রোববার (১২ আগস্ট) জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির ৪৩তম বৈঠকে এ সুপারিশ করা হয়।

কমিটির সভাপতি আবদুল মতিন খসরুর সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য ও আইনমন্ত্রী আনিসুল হক, মো. শামসুল হক টুকু, জিয়াউল হক মৃধা, সফুরা এবং আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে আমন্ত্রিত অতিথি ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অ্যাডভোকেট মো. একরামুল হক।

কমিটির মতে, ফৌজদারি মামলায় আসামিদের বার বার হাজিরার নামে হয়রানির শিকার হতে হয়, যা ন্যায় বিচারের পরিপন্থি। এ জন্য চার্জশিট না হওয়া পর্যন্ত তাদের হাজিরা তুলে দেয়ার বিধান রেখে আইন করার সুপারিশ করা হয়।

বৈঠক শেষে কমিটির সভাপতি আবদুল মতিন খসরু সাংবাদিকদের বলেন, অনেক সময় একটা মামলায় ৬০-৭০ জন আসামি করা হয়। দেখা যায়, এফআইআর দেয়ার অনেক দিন পরে চার্জশিট দেয়া হয়। এ সময়টায় যাদের আসামি করা হয়, তাদের নির্দিষ্ট সময় পর পর আদালতে হাজিরা দিতে হয়। এটি মানবাধিকারের লঙ্ঘন। এমন হওয়া উচিত যে, একবার সারেন্ডার করে জামিনে যাবে, চার্জশিট দেয়ার আগ পর্যন্ত অন কল থাকবে। তাদের ওই এক মাস পর পর হাজিরা দিতে হবে না। এই লক্ষ্যে একটা আইন করার জন্য বলা হয়েছে।

কমিটি আদালতে ন্যায় বিচার প্রার্থীদের বিভিন্ন প্রকার অবিচার, হয়রানি ও অপমানিত হওয়ার কারণসমূহ নির্ণয়পূর্বক সমাধানে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করে। বৈঠকে বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তির জন্য অবিলম্বে বিচার প্রক্রিয়া ঢেলে সাজানোর সুপারিশ করা হয়। বৈঠকে পিপি ও এপিপিদের বেতন-ভাতা সম্মানজনকভাবে বাড়ানোর সুপারিশ করে।

এইচএস/এএইচ/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :