ব্যবসা তুঙ্গে ঘণ্টি-মালারও

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১১:১৮ এএম, ২০ আগস্ট ২০১৮
ফাইল ছবি

কোরবানি পশু কেনার পর হাট থেকে কিছুটা সাজিয়ে বাসায় নিতে চান অনেকে। হাটের পাশেই এসব উপকরণের দোকানে তাই ভিড়ও প্রচুর। দামদর যাই হোক পশু যেন দেখতে একটু সুন্দর লাগে সেই চেষ্টা। ফলে এসব উপকরণে বাণিজ্যও বেশ জমজমাট।

সোমবার (২০ আগস্ট) রাজধানীর গাবতলীর পশুর হাটে গিয়ে দেখা যায়, বিভিন্ন দামে এসব উপকরণ বিক্রি হচ্ছে। বিক্রেতারা বলছেন, কোরবানির পশু সাজাতে এসব বিভিন্ন উপকরণ ব্যবহার হয়। এর মধ্যে কাগজ ও জরির মালা, ঘণ্টি মালা, নানা ধরনের কাপড়ের মালা এবং রঙ-বেরঙের দড়িসহ নানা উপকরণ রয়েছে।

আরমান নামের এক বিক্রেতা জানান, মাথা, গলা ও শিংয়ে পরানোর জন্য ঘন্টিসহ রঙ-বেরঙয়ের কাগজের দাম পড়বে ৩৫০-৪০০ টাকা (তিনটার প্যাকেজ)। গরু হাঁটলে বা নড়াচড়া করলে এগুলো টুংটাং শব্দ করবে। এছাড়া শুধু মালাও রয়েছে। এসবের দাম পড়বে ১০০-২৫০ টাকার মধ্যে।

তবে সবাই এসব উপকরণ না কিনলেও একটি-দুটি ছোট বাশের লাঠি কিনতেই হচ্ছে। দাম পড়বে মাত্র ২০ টাকা। এটি দিয়ে হয়তো গরু পেটায় না, তবে ভয় দেখিয়ে গন্তব্যে পৌঁছাতে সুবিধা হয় বলে জানায় এক ক্রেতা সিয়াম।

জানা গেছে, কোরবানির ঈদের প্রাক্কালে তাই চাঙা হয়ে ওঠে এসব তৈরির ক্ষুদ্র শিল্পগুলো। রাজধানীর শুধু গাবতলী হাটেই এসব উপকরণ প্রতিদিন বিক্রি হয় ১২ থেকে ১৬ লাখ টাকার। এ হিসাবে ঈদের আগের ১০ দিনে এক কোটি ২০ লাখ থেকে এক কোটি ৬০ লাখ টাকার উপকরণ বিক্রি হচ্ছে।

এমএ/এসআর/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :