স্বরূপে ফেরেনি ঢাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৪৩ পিএম, ২৬ আগস্ট ২০১৮

টানা পাঁচ দিনের ছুটির পর রোববার খুলেছে রাজধানীর অধিকাংশ স্কুল-কলেজ, অফিস-আদালত, আর্থিক প্রতিষ্ঠান। ব্যস্ততা ফিরতে শুরু করেছে ঢাকায়। তবে স্বাভাবিক কার্যদিবসের মতো যানজট নেই আজ। নগরবাসীরা মনে করছেন, এ সপ্তাহে সড়কে যানবাহনের চাপ কিছুটা কম থাকবে, ঢাকা সরব হতে আরও সপ্তাহখানেক সময় লাগবে।

পরিবার-পরিজনের সঙ্গে ঈদ উদযাপন শেষে শনিবার রাত থেকেই ঢাকার সায়েদাবাদ, মহাখালী বাস টার্মিনাল, কমলাপুর রেলস্টেশন এবং সদরঘাটে ঢাকামুখী মানুষদের ভিড় লক্ষ করা যাচ্ছে। রাজধানীজুড়ে তেমন যানজট চোখে না পড়লেও বাস টার্মিনাল সংলগ্ন সড়কগুলোতে ধীরগতিতে যানবাহন চলাচল করছে।

faka

রোববার ধানমন্ডি, মালিবাগ, বাড্ডা, গুলশান, ফার্মগেট, মহাখালী, রামপুরা এলাকার সড়ক ফাঁকা দেখা যায়। এসব এলাকার অধিকাংশ দোকানপাট হোটেল-রেস্টুরেন্টও বন্ধ রয়েছে। প্রাইভেটকারও ছিল কম।

ছুটি কাটিয়ে শেরপুর থেকে ঢাকায় ফিরেছেন চকবাজারের দোকানি খলিলুর রহমান। মহাখালী বাস টার্মিনালে তিনি জাগো নিউজকে বলেন, পাঁচ দিনের ছুটিতে দুদিন ছিলাম রাস্তায়। বাড়িতে মাত্র তিনদিন থেকে, আবার ফিরে আসা খুবই বেদনার। তবুও জীবিকার তাগিদে ফিরে আসতে হয়। আবারও ঢাকার চিরচেনা যানজট আর ভোগান্তির জন্য প্রস্তুতি নিতে হবে। তবে আশা করছি, এই সপ্তাহটা ঢাকা কিছুটা ফাঁকা থাকবে।

faka

ঝিনাইদহের কালিগঞ্জ থেকে এসেছেন আওলাদ মোল্লা। তিনি জানান, মানুষ আসতে শুরু করলেও ছুটির আমেজ আরও তিন থেকে চারদিন থাকবে। এই কয়েকদিন স্বস্তিতে ঢাকায় চলাফেরা করা যাবে।

এদিকে রোববার রাজধানীর অধিকাংশ স্কুল-কলেজ খোলা থাকলেও শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি ছিল অনেক কম। ধানমন্ডির স্কুলপাড়ায়ও ছিল না কোনো যানজট।

faka

রোববার সকাল থেকেই সরকারি অফিস, ব্যাংক পাড়া মতিঝিল ও দিলকুশাতে দেখা গেছে, গ্রাহক কর্মচারীদের ব্যস্ততা। নিত্যদিনের মতো ব্যাংকে গ্রাহকদের ভিড় নেই, তবে সংখ্যাটা কমও ছিল না।

উল্লেখ্য, ঈদুল আজহা উদযাপিত হয় গত ২২ আগস্ট। ২১, ২২ ও ২৩ আগস্ট ছিল সরকারি ছুটি । এরপর ২৪ ও ২৫ আগস্ট (শুক্র ও শনিবার) সাপ্তাহিক ছুটির দিন। এতে ঈদের মোট ছুটি দাঁড়ায় পাঁচদিন।

এআর/জেডএ/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :