নির্যাতনের বিচার হয় না, সংখ্যালঘুরাই হয়রানির শিকার

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:১৫ পিএম, ২৬ অক্টোবর ২০১৮

হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর একের পর এক হামলার বিচার না হওয়ার কারণে দিনে দিনে নির্যাতন, নিপীড়ন বেড়েই চলছে উল্লেখ করে এ হামলায় জড়িতদের বিচারের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট।

শুক্রবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আয়োজিত মানববন্ধনে এ দাবি জানানো হয়। মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, বিগত কিছুদিন ধরে সাভার পৌর এলাকার পোড়াবাড়ী, মাঝিপাড়া গ্রামে দূর্গা প্রতিমা বিসর্জন দেয়াকে কেন্দ্র করে ২০ হিন্দু পরিবারের ওপর হামলা, মন্দির ভাংচুর, ময়মনসিংহে জমি দখল, সাতবাড়ী শ্মশানে ৩০ জন আহত হয়।

এছাড়া সীতাকুণ্ডে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান দখল, গুইমারা জেতবন বৌদ্ধ বিহারে হামলা, সৌম বৌদ্ধ মুর্তি ভাংচুর, রাজশাহীর বাগমারায় ১৪৭ বিঘা জমি দখল, সিলেটে হিন্দু পরিবারের জমি দখল ও দেশ ত্যাগে বাধ্য করার হুমকি, বগুড়া ধনুটে পুজা মণ্ডপে হামলা, টাংগাইলের গোপালপু ও যশোরের বাঘার পাড়ায় প্রতিমা ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। এ সব অপরাধের সঙ্গে জড়িতদের অতিদ্রুত গ্রেফতার করে বিচারের আওতায় আনতে হবে।

এ সময় আয়োজক সংগঠনের পক্ষ থেকে দাবি জানিয়ে বলা হয়, জাতীয় সংসদে নির্বাচন চলাকালে ও নির্বাচন পরবর্তী হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর সহিংসতা ও নির্যাতন বন্ধে এবং হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রতিনিধি নিশ্চিত করতে চলমান অধিবেশনেই জাতীয় সংসদে ৫০টি সংরক্ষিত আসন ও পৃথক নির্বাচন ব্যবস্থা করতে হবে। এছাড়া হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর নির্যাতনকারীদের দ্রুত বিচার বিচারের আওতায় আনতে হবে।

মানববন্ধনে হিন্দু সম্প্রদায়ের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন- উজ্জ্বল মণ্ডল, তপন হাওলাদার, গোবিন্দ চন্দ্র প্রামাণিক, উত্তম দাস, মনি শঙ্কর মণ্ডল, প্রতীভা বাগচি, রিপন দে গোপাল পাল প্রমুখ।

এএস/এমআরএম/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]