রাজধানীতে শুরু হচ্ছে আন্তর্জাতিক ফুল প্রদর্শনী

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:০৮ পিএম, ০৪ ডিসেম্বর ২০১৮

ফুল উৎপাদন বৃদ্ধিসহ আন্তর্জাতিক বাজারে ব্যবসা সম্প্রসারণের লক্ষ্যে দেশে প্রথমবারের মত শুরু হচ্ছে ফুল প্রদর্শনী।

বৃহস্পতিবার (৬ ডিসেম্বর) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে তিন দিনব্যাপী এ মেলা শুরু হবে। চলবে শনিবার (৮ ডিসেম্বর) পর্যন্তু। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মেলা চলবে। মেলা সবার জন্য উন্মুক্ত।

ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই), ইউএসএআইডি ও বাংলাদেশ ফ্লাওয়ার সোসাইটি (বিএফএস) যৌথভাবে মেলার আয়োজন করছে।

মঙ্গলবার (৪ ডিসেম্বর) রাজধানীর মতিঝিলে ঢাকা চেম্বারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান ডিসিসিআইয়ের সভাপতি আবুল কাসেম খান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, কৃষি মন্ত্রণালয়ের সাবেক সেক্রেটারি এবং ইউএসএইডির কনসালটেন্ড আনোয়ার ফারুক, ইউএসএইড-এভিসি প্রজেক্টের চিফ অব পার্টি লি রোসনার, ডিসিসিআইয়ের ভাইস প্রেসিডেন্ট কামরুল ইসলাম, ইমরান আহমেদ প্রমুখ।

ডিসিসিআই সভাপতি বলেন, ফুল শিল্পকে প্রসারিত করতে এ মেলার আয়োজন করা হয়েছে। মেলার মাধ্যমে সরকার এবং ফুল সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি ও সংগঠনের সবাইকে এক ছাদের নিচে আনার চেষ্টা হচ্ছে। এবারের মেলায় দেশি-বিদেশি মোট ৭০টি স্টল থাকবে। এর মধ্যে ভারত, নেপাল ও থাইল্যান্ডের ১২টি স্টল থাকবে।

এ ছাড়া তিন দিনব্যাপী প্রদর্শনীতে ফুল উৎপাদন, বিক্রি এবং ফুল শিল্পের সুযোগ-সুবিধা, ভবিষৎ এবং চ্যালেঞ্জের বিষয়ে একাধিক সেমানিার অনুষ্ঠিত হবে। এতে দেশ-বিদেশের বিশিষ্ট ব্যক্তিরা অংশ নেবেন।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, বর্তমানে বিশ্বে ৪৫ বিলিয়ন ডলার ফুলের বাজার রয়েছে। এর মধ্যে ভারতে ফুলের বাজারের পরিমাণ ৯ হাজার কোটি টাকা। চীনের অবদান আরও বেশি। আর বাংলাদেশের ফুলের বাজার ৮০০-১২০০ কোটি টাকার। এরমধ্যে বর্তমানে ৮৪ কোটি টাকার রফতানি হচ্ছে। ২০১৮ সালে বিদেশি রফতানির টার্গেট ২০০ কোটি টাকা।

দেশে ১৬ হাজার কৃষক ফুল চাষ করছে। এ শিল্পে এখন পরোক্ষ ও প্রত্যক্ষভাবে ৩০ লাখ মানুষ জড়িত। এ খাতে যত উৎপাদন বাড়বে, ফুল ততই বিদেশে রফতানি হবে।

এসআই/এএইচ /এমকেএইচ

আপনার মতামত লিখুন :