নির্বাচন ও ছুটির প্রভাব বিজয় দিবসে!

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৮:৩২ পিএম, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ভবনের সামনে রোববার (১৬ ডিসেম্বর) বিকেলে মন খারাপ করে দাঁড়িয়েছিলেন রুমাল বিক্রেতা দীন ইসলাম। বিজয় দিবসে ক্যাম্পাসে ভালো বেচাকেনা হবে ভেবে সাতসকালে বাসা থেকে বের হন। কিন্তু সারা দিনে মানুষের উপস্থিতি খুবই কম দেখে বিকেলে চেহারায় চিন্তার ছাপ।

এ প্রতিবেদককে তিনি বলেন, গত বছরের এই দিনে হাজার চারেক টাকা বিক্রি হলেও আজ বিক্রি হয়েছে মাত্র সাড়ে তিনশ। মানুষের উপস্থিতি কম কেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, তা কইতে পারুম না, তয় গত বছরের তুলনায় ক্যাম্পাসে মানুষ একেবারেই কম।

victory-day1

সরেজমিনে ঢাবি, ধানমন্ডি ঘুরে দেখা গেছে, অন্যান্য বছরগুলোতে বিজয় দিবস উদযাপন করতে মানুষের উপচে পড়া ভিড় থাকলেও আজ উপস্থিতি তুলনামূলক কম। অন্যান্য বছর ঢাবিতে প্রবেশের সবগুলো পথে ব্যারিকেড বসিয়ে যান চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়। দুপুরের পর পায়ে হেঁটে প্রবেশ দায় হয়ে পড়ে। কিন্তু আজকের চিত্র ছিল ভিন্ন। বিকেল ৫টার সময়ও টিএসসিতে গাড়ি মোটরসাইকেল অবাধে চলতে দেখা যায়।

victory-day1

লালবাগের বাসিন্দা জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, অন্যান্য বছর ক্যাম্পাসে একাধিক কনসার্ট ও বিভিন্ন অনুষ্ঠান থাকলেও এবার তা নেই। এ ছাড়া সরকারি ছুটি ২-৩ দিন পাওয়া এবং বার্ষিক পরীক্ষা শেষ হওয়ায় অনেকে গ্রামে চলে গেছে। তাই মানুষের উপস্থিতি কম।

ধানমন্ডির বাসিন্দা নজরুল ইসলাম বলেন, নির্বাচনের প্রচারে তরুণরা ব্যস্ত থাকায় কেউ কেউ গোলযোগের আশঙ্কায় বাসা থেকে বের হয়নি বলে মন্তব্য করেন তিনি।

এমইউ/এএইচ/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :