‘নিরাপদ খাদ্য-সড়ক নিশ্চিতে ভ্রাম্যমাণ আদালত জোরদার করা হবে’

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১০:০১ পিএম, ১৬ জানুয়ারি ২০১৯

'নিরাপদ খাদ্য’ ও ‘নিরাপদ সড়ক’ নিশ্চিতের লক্ষ্যে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনে (ডিএনসিসি) ভ্রাম্যমাণ আদালতের কার্যক্রম জোরদার করা হবে বলে জানিয়েছেন ভারপ্রাপ্ত মেয়র জামাল মোস্তফা।

বুধবার (১৬ জানুয়ারি) রাজধানীর গুলশানে বিভিন্ন রেস্টুরেন্টে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার সময় তিনি এ কথা বলেন।

জামাল মোস্তফা বলেন, ‘নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতের পাশাপাশি ফুটপাত ও অন্যান্য স্থাপনা অবৈধ দখলমুক্ত করে ‘নিরাপদ সড়ক’ নিশ্চিতে ভূমিকা রাখতে চাই। সর্বোপরি, নাগরিক জীবন-যাপন নির্বিঘ্ন করার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

ডিএনসিসির নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাজিদ আনোয়ারের নেতৃত্বে রাজধানীর বনানী ও গুলশান-২ এলাকায় দুটি রেস্টুরেন্ট এবং একটি বেকারিতে অভিযান চালনো হয়।

এ সময় অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে রান্নার উপকরণ রাখা, খাদ্যদ্রব্য খোলা পরিবেশে রাখা, খাবার প্যাকেটে উত্তীর্ণের মেয়াদ, কর্মচারীদের ফিটনেস সনদ এবং যথাযথ ট্রেড লাইসেন্স না থাকায় গুলশান-২ এ কোরিয়ানা রেস্টুরেন্টকে ভোক্তা অধিকার আইন ২০০৯ অনুযায়ী তিন লাখ এবং পিএইচও-১০১ রেস্টুরেন্টকে দেড় লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া খাবারের প্যাকেটে উৎপাদনের তারিখ না থাকায় একই আইনে বনানী ১১নং সড়কের বন্ড বেকারিকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাজিদ আনোয়ার বলেন, ‘ডিএনসিসির অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান ও ভ্রাম্যমাণ আদালত অব্যাহত থাকবে।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনাকালে অন্যান্যের মধ্যে ডিএনসিসির জনসংযোগ কর্মকর্তা এ এস এম মামুন, স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মো. ইমদাদুল হক উপস্থিত ছিলেন।

এএস/এএইচ/পিআর