মেলায় বসার ভোগান্তিতে ক্রেতা-দর্শনার্থীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:৩২ পিএম, ১৮ জানুয়ারি ২০১৯

সাপ্তাহিক ছুটির দিন শুক্রবার (১৮ জানুয়ারি) ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় মানুষের ঢল নামে, বিকেল গড়িয়ে সন্ধ্যার পর সেই ভিড় আরও বাড়তে থাকে। প্রচুর মানুষের সমাগম হওয়ায় ঘুরতে ঘুরতে ক্লান্ত হওয়া ক্রেতা-দর্শনার্থীরা বিশ্রাম নিতে চাইলেই পড়েছেন ভোগান্তিতে। কেননা বসার যে আসন ছিল, সেখানে বসার সুযোগ হয়নি অনেকের।

মেলা ঘুরে দেখা যায়, দর্শনার্থীদের জন্য বসার যে ব্যবস্থা করেছে কর্তৃপক্ষ সেগুলোতে রয়েছে অব্যবস্থাপনা। ধুলাবালিতে ঢাকা পড়েছে কিছু আসন। কেউ কেউ সেগুলোর ওপর কাগজ বিছিয়ে বসেছেন। যেখানে কাগজ নেই, সেই অংশ ফাঁকা রয়েছে ধুলার জন্য। যারা পরিবার নিয়ে এসেছিলেন, তারা পড়েছেন বেশি ভোগান্তিতে। তাই মেলায় ঘোরার পর ক্লান্ত হলে বসার জন্য বেশিরভাগইবেছে নিয়েছেন প্যাভিলিয়ন, স্টলের পাশের জায়গাগুলো।

TradeFair

গাজীপুরের গাজীপুরা থেকে পরিবারের ছয় সদস্য নিয়ে মেলায় আসেন পোশাক শ্রমিক মো. রাসেল। সঙ্গে তারা দুপুরের খাবারও নিয়ে এসেছিলেন। কিন্তু মেলায় এসে বসার ও খাবারের জায়গা না পেয়ে একটি প্যাভিলিয়নের দেয়ালে রাখা কাচের ওপর বসে খাবার খাচ্ছিলেন সবাই।

মো. রাসেল জাগো নিউজকে বলেন, ‘বসার জায়গা তো পাইনি। খাবার খামু সেই জায়গাও নাই। তাই এইখানে বইসা খাইতেছি সবাই।’

TradeFair

এ বিষয়ে বাণিজ্য মেলার সদস্য সচিব ও রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর কর্মকর্তা আব্দুর রউফকে একাধিকবার ফোন করা হলেও তা রিসিভ হয়নি।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের কারণে এবারের বাণিজ্য মেলা আটদিন পিছিয়ে গত ৯ জানুয়ারি শুরু হয়েছে। মেলা শুরুর পর ১১ জানুয়ারি প্রথম ছুটির দিনও (শুক্রবার) ছিল এমন উপচে পড়া ভিড়। মাসব্যাপী এ মেলা শেষ হবে ৮ ফেব্রুয়ারি।

TradeFair

মেলার গেট ও বিভিন্ন স্টল প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত খোলা থাকছে। মেলায় প্রবেশ মূল্য ৩০ টাকা এবং অপ্রাপ্ত বয়স্কদের জন্য ২০ টাকা। মেলা প্রাঙ্গণ ছাড়া অনলাইনেও পাওয়া যাচ্ছে এবারের মেলার টিকিট।

TradeFair

মেলায় এবার প্যাভিলিয়ন, মিনি-প্যাভিলিয়ন, রেস্তোরা ও স্টলের মোট সংখ্যা ৬০৫টি। এর মধ্যে প্যাভিলিয়ন ১১০টি, মিনি-প্যাভিলিয়ন ৮৩টি ও রেস্তোরাসহ অন্যান্য স্টল রয়েছে ৪১২টি। বাংলাদেশ ছাড়াও ২৫টি দেশের মোট ৫২টি প্রতিষ্ঠান মেলায় অংশ নিচ্ছে।

পিডি/এএইচ/পিআর