বেসিক ব্যাংকের দুই ডিজিএমসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৭:২৫ পিএম, ২৩ জানুয়ারি ২০১৯

প্রায় আট কোটি টাকার ঋণ আদান-প্রদানের মাধ্যমে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে বেসরকারি বেসিক ব্যাংকের দুই উপ-মহাব্যবস্থাপকসহ (ডিজিএম) ১৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। বুধবার রাজধানীর গুলশান থানায় এ মামলা করেন দুদকের প্রধান কার্যালয়ের উপ-সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ জিন্নাতুল ইসলাম।

মামলার আসামিরা হলেন- বেসিক ব্যাংকের ডিজিএম মো. ইমরুল ইসলাম, ডিজিএম শাকির মাহমুদ শরফুদ্দীন, ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (বর্তমানে বরখাস্ত) মো. শাহ আলম ভূঁইয়া, সাবেক শাখা ব্যবস্থাপক (বর্তমানে বরখাস্ত) আসিফ আহমেদ ও সাবেক অ্যাডভান্সড অফিসার ফারুক আহমেদ ভূঁইয়া।

বেসিক ব্যাংকের বাইরে অন্য আসামিরা হলেন- মেসার্স পিসি এভিনির মালিক রোজিনা আহম্মেদ, রমনার বাসিন্দা মোশারফ হোসেন, তোপখানার মোয়াজ্জেম হোসেন, তোপখানার মোতালেব হোসেন, তোফখানার মোফাজ্জল হোসেন, ভূঁইয়া এসোসিয়েটসর পরিচালক ইঞ্জিনিয়ার এম (মোশারফ) হোসেন ভূঁইয়া, ভূঁইয়া এসোসিয়েটসর কনসালটেন্ট ইঞ্জিনিয়ার মহিউদ্দিন সিকদার ও ঢাকা পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের সাবেক ইন্সট্রাকটর (সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ) খলিলুর রহমান ভূঁইয়া।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, ‘আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে ক্ষমতার অপব্যহার করে জালিয়াতির আশ্রয় নিয়ে বেসিক ব্যাংকের গুলশান শাখা থেকে ৬ কোটি ৩৭ লাখ ৮৫ হাজার ৩৯ টাকা ঋণ নিয়ে তা আত্মসাৎ করেছেন। বর্তমানে সুদাসলে এই টাকার পরিমাণ ৭ কোটি ৯২ লাখ ৪২ হাজার ৩৯৩ টাকা হয়েছে।’

ঋণ আদান-প্রদানের মাধ্যমে অর্থ আত্মসাৎ করার অভিযোগে দণ্ডবিধির ৪০৯/৪০৬/১০৯/১৬৮ এবং দুর্নীতি প্রতিরোধ আইন, ১৯৪৭ এর ৫(২) ধারায় মামলাটি করা হয়।

এমইউ/জেডএ/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :