সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে আগুন : কারণ-ক্ষয়ক্ষতি নিরূপণে কমিটি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:৫৬ পিএম, ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
হাসপাতালের ক্ষতিগ্রস্ত একাংশ

রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের নতুন ভবনের অগ্নিকাণ্ডের কারণ ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নিরূপণে পৃথক তদন্ত কমিটি গঠন করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

অগ্নিকাণ্ডের রাতেই আগুনের কারণ জানতে ৯ সদস্যের একটি কমিটি এবং ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নিরূপণ করতে গতকাল শুক্রবার ৭ সদস্যের আরেকটি কমিটি গঠন করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হাসপাতালের তদন্ত কমিটির সদস্য সচিব শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. কে এম মামুন মোর্শেদ। দুপুরে জাগো নিউজকে তিনি বলেন, অগ্নিকাণ্ডের কারণ জানতে শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. পঙ্কজ কুমার সাহাকে প্রধান করে ৯ সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিকে তিন কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

অন্য সদস্যরা হলেন, শিশু বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. আবদুল মতিন, গাইনি অ্যান্ড অবস বিভাগের অধ্যাপক ডা. মুনীরা ফেরদৌস, সার্জারি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. এস এম কামরুল আক্তার, সেবা তত্ত্বাবধায়ক জুলিয়েট সরদার, হাসপাতালটির এসএলপিপি’র ডা. নন্দ দুলাল সাহা, শেরে বাংলা নগরের গণপূর্ত বিভাগে-১ এর নির্বাহী প্রকৌশলী এবং গণপূর্ত ইএম/বিভাগ-৭ এর নির্বাহী প্রকৌশলী।

অন্যদিকে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নিরূপণ করতে পৃথক আরেকটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। সাত সদস্যের ওই কমিটির প্রধান গাইনি অ্যান্ড অবস বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. ফাতেমা আশরাফ। অন্যরা হলেন- শিশু সার্জারি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. কামরুল জাহিদ, হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. এ এম মামুন মোর্শেদ, নিউরো সার্জারি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. সৌমিত্র সরকার, হাসপাতালটির এসএলপিপি’র ডা. নন্দ দুলাল সাহা, আবাসিক চিকিৎসক ডা. মোস্তফা কামাল ও প্রশাসনিক কর্মকর্তা শাহ মো. সাইফুল ইসলাম।

উল্লেখ্য, সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় সাত সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে স্বাস্থ্য পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়। ওই কমিটিতে স্বাস্থ্য অধিদফতর, ফায়ার সার্ভিস, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়, বিদ্যুৎ বিভাগ ও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সমন্বয়ে এ কমিটি গঠন করা হয়। তাদের তিনদিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে। একই ঘটনায় ৫ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করেছে ফায়ার সার্ভিসও।

এর আগে সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার কারণ বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট বলে জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

জেইউ/জেএইচ/আরআইপি