জরিমানা দেয়, তবু ভোট দেয় না : সিইসি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:১৯ পিএম, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

ইউরোপের একটি দেশ বেলজিয়াম। সেখানে একসময় ভোট দেয়ার হার কমে ২০ শতাংশের নিচে চলে যায়। তখন দেশটির সরকার আইন করে, নির্বাচনের সময় কেউ যদি ভোট না দেয়, তাহলে জরিমানা করা হবে। তারা জরিমানা দেয়, তারপরও ভোট দেয় না।

মঙ্গলবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) সকালে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে তৃতীয় পর্যায়ে নিয়োগ করা রিটার্নিং কর্মকর্তা/সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের উদ্দেশে বেলজিয়ামের এই গল্প শোনান প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা। তিনি এই গল্প শুনেছিলেন ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদের কাছে।

সিইসি বলেন, ‘(বেলজিয়ামবাসী) জরিমানা দিয়েও বলে যে, ভোট দেয়ার দরকার নাই। সেই একটা সংস্কৃতি। আর উল্টো আমাদের দেশের সংস্কৃতি।’

তিনি বলেন, এইসব (উপজেলা পরিষদ) নির্বাচনে আপনারা দেখেছেন, ভোটাররা সারিবদ্ধভাবে, অত্যন্ত উৎসবমুখর ও আনন্দঘন পরিবেশে কেন্দ্রে ভোট দেয়ার জন্য উপস্থিত থাকেন।

নূরুল হুদা বলেন, ‘আপনারা যারা সংবাদকর্মী আছেন, তাদের মাধ্যমে আমরা টেলিভিশন ও পত্রপত্রিকায় দেখেছি, গ্রামের মহিলারা ভালো কাপড়চোপড় পরে, সাজুগুজু করে লম্বা লাইন দিয়ে ভোট কেন্দ্রের সামনে দাঁড়িয়ে আছে। উৎসবমুখর পরিবেশ বলতে আমরা যেটা বুঝি, সেরকম একটা বিষয়। সেই নির্বাচন পরিচালনার দায়িত্ব আপনাদের হাতে।’

ভোটাররা যাতে তাদের ভোটাধিকার সঠিকভাবে প্রয়োগ করতে পারেন, সেই ব্যাপারে উপস্থিত রিটার্নিং ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন সিইসি। সেই সঙ্গে তাদেরকে উপজেলা নির্বাচনের প্রয়োজনীয় আইন-কানুনও ভালোভাবে জেনে নেয়ার পরামর্শ দেন তিনি।

এ সময় নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার, কবিতা খানম, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) শাহাদাত হোসেন চৌধুরী, রফিকুল ইসলাম এবং ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদও রিটার্নিং কর্মকর্তাও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের দিক-নির্দেশনা দেন।

পিডি/এমএমজেড/এমকেএইচ