গাউছুল আজমের তরিক্বত নবীপ্রেম অর্জনের ক্ষেত্র

মুহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন
মুহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন মুহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুন , আমিরাত প্রতিনিধি
প্রকাশিত: ০৩:৩৯ পিএম, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

কাগতিয়া আলীয়া গাউছুল আজম দরবার শরীফের মহান মোর্শেদ আওলাদে রাসূল হযরতুলহাজ্ব আল্লামা অধ্যক্ষ শায়খ ছৈয়্যদ মোর্শেদে আজম মাদ্দাজিল্লুহুল আলী বলেছেন, প্রিয় রাসূল (দঃ) এর প্রতি ভালবাসা হলো ‘মুহাব্বত ফিল এখতিয়ার’ তথা অর্জিত মুহাব্বত।

অর্থাৎ ইহা স্বভাবগত নয় বরং অর্জন করতে হয়। যে মহামনিষীদের পথে রাসূল (দঃ) এর ভালোবাসার সুরভি মিলে তাদের সান্নিধ্য অর্জন করতে হবে। হযরত গাউছুল আজমের তরিক্বত নবীর মুহাব্বত অর্জনের ক্ষেত্র। এ তরিক্বতে প্রতিদিন বাদে নামাজে এশা প্রিয় রাসূল (দঃ) এর জিয়ারত শরীফ নসীব হয়।

বুধবার (২০ ফেব্রুয়ারি) চট্টগ্রামের রাউজান পশ্চিম লেলাংগারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ময়দানে পবিত্র জশনে জুলুছে ঈদে মিলাদুন্নবী (দঃ) ও কাগতিয়া দরবারের প্রতিষ্ঠাতা খলিলুল্লাহ আওলাদে মোস্তফা খলিফায়ে রাসূল হযরত শায়খ ছৈয়্যদ গাউছুল আজম রাদ্বিয়াল্লাহু আন্হুর স্মরণে আয়োজিত এশায়াত মাহফিলে উপস্থিত ধর্মপ্রাণ মুসলমানের উদ্দেশ্যে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছিলেন।

হযরত আবুল আব্বাস মুরাইসি (রাঃ) এর উদ্ধৃতি দিয়ে তিনি আরও বলেন, প্রিয় রাসূল (দঃ) এক পলকের জন্য চোখের আড়াল হলে তিনি নিজেকে মুসলমান মনে করতেন না। অনুরূপভাবে প্রিয় রাসূল (দঃ) হযরত গাউছুল আজমের প্রাণের চেয়েও সন্নিকটে। যার বাস্তবতা বহন করে হযরত গাউছুল আজম রাদ্বিয়াল্লাহু আনহুর পবিত্র জবানের ঘোষণা- “প্রিয় রাসূল (দঃ) এর সাথে দৈনিক কমপক্ষে একবার দেখাও হয় কথাও হয়'।

মুনিরীয়া যুব তবলীগ কমিটি বাংলাদেশ ১৩০নং লেলাংগারা শাখার উদ্যোগে অনুষ্ঠিত এশায়াত মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট সদস্য প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আবুল মনছুর।

বক্তব্য রাখেন, কাগতিয়া এশাতুল উলুম কামিল এম. এ. মাদরাসার উপাধ্যক্ষ হযরতুল আল্লামা মুহাম্মদ বদিউল আলম আহমদী, মুনিরীয়া যুব তবলীগ কমিটি বাংলাদেশ ওলামা পরিষদের সহ-এশায়াত সম্পাদক মাওলানা মুহাম্মদ শাহজান নোমান, সংগঠনের এশায়াত সম্পাদক হযরতুলহাজ্ব আল্লামা মুহাম্মদ সেকান্দর আলী, মাওলানা মুহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল ফারুক ও মাওলানা মুহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ।

এতে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সহ-সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মুহাম্মদ তসলিম উদ্দীন, মাওলানা মুহাম্মদ জমির উদ্দীন, উপাধ্যক্ষ মুহাম্মদ সাইফুল ইসলাম, অধ্যাপক মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম, অধ্যাপক মুহাম্মদ অলি আহাদ চৌধুরী, চৌধুরী সালাউদ্দীন মুহাম্মদ শাহীন, আলহাজ্ব মুহাম্মদ দৌলত মিয়া, মাষ্টার মুহাম্মদ সোলাইমান প্রমুখ।

মিলাদ ও কিয়াম শেষে প্রধান অতিথি দেশ, জাতি ও বিশ্ব মুসলিম উম্মাহ্র ঐক্য, সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি এবং দরবারের প্রতিষ্ঠাতা গাউছুল আজম রাদ্বিয়াল্লাহু আন্হুর ফুয়ুজাত কামনা করে বিশেষ মুনাজাত পরিচালনা করেন।

এমআরএম/পিআর