ধরা খেল সচিবের গাড়ি!

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০২:০৪ পিএম, ২০ মার্চ ২০১৯

রাজধানীর নীলক্ষেত এলাকা থেকে শাহবাগ আসছিল সাদা রঙের একটি প্রাইভেট কার। শাহবাগের ফুটওভার ব্রিজের সামনে আসতেই অবরোধকারী শিক্ষার্থীরা পথরোধ করে ড্রাইভারের কাছে লাইসেন্স দেখতে চান।

ঢাকা-মেট্রো-খ-১২-০৫১৬ নম্বরের গাড়িটির ওপর জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের স্টিকার লাগানো। ড্রাইভার আমতা আমতা করে সরকারি গাড়ি বলতেই শিক্ষার্থীরা ভুয়া ভুয়া বলে চিৎকার শুরু করেন।

গাড়িটির মালিকের পরিচয় জানতে চাইলে ড্রাইভার বলেন, তার স্যার উপ-সচিব। এ সময় শিক্ষার্থীরা সাইন পেন দিয়ে গাড়ির বনেটে ‘ভুয়া’, ‘লাইসেন্স নাই’, ‘ঘুষের টাকায় লাইসেন্স লাগে না?’ ইত্যাদি লিখে দেন। পরে গাড়িটি রেখে তার স্যারকে আনতে চলে যান ড্রাইভার।

Shabag-2

একই সময় মৎস্য ভবন থেকে পুলিশের একটি প্রিজন ভ্যান শাহবাগ সিগন্যালে এলে শিক্ষার্থীরা পথরোধ করে লাইসেন্স দেখতে চান। লাইসেন্স দেখাতে না পারায় গাড়ির বনেটে ‘ভুয়া’ লিখে পিছু হটতে বাধ্য করে। এ সময় একজন বিচারপতির গাড়ি চেক না করেই তা ছেড়ে দেয়া হয়।

মঙ্গলবার (১৯ মার্চ) সকালে ডিএনসিসির আওতাধীন প্রগতি সরণি এলাকায় সু-প্রভাত বাসের চাপায় বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের (বিইউপি) শিক্ষার্থী আবরার আহাম্মেদ চৌধুরী নিহত হন। পরে সড়ক অবরোধ করে আন্দোলন শুরু করেন শিক্ষার্থীরা। এ সময় তারা আট দফা দাবি ঘোষণা করেন এবং বুধবার সকাল ৮টা পর্যন্ত অবরোধ কর্মসূচি স্থগিত করেন।

আজ সকাল থেকে আবার রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক গেট এলাকা, শাহবাগসহ পুরান ঢাকার তাঁতিবাজার, জনসন রোড ও রায়সাহেব বাজার এলাকায় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছেন শিক্ষার্থীরা।

এমইউ/এমএসএইচ/এমকেএইচ

টাইমলাইন  

আপনার মতামত লিখুন :