বিইউপির ১০ শিক্ষার্থীর সঙ্গে বৈঠকে মেয়র আতিকুল

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:২৫ পিএম, ২০ মার্চ ২০১৯

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলামের সঙ্গে বৈঠকে বসেছে বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের (বিইউপি) ১০ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল। বুধবার বেলা ২টায় এই বৈঠক শুরু হয়। এখনও বৈঠক চলছে বলে জানা গেছে।

বৈঠকে উপস্থিত আছেন ডিএমপি কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া, বিইউপি উপাচার্য মেজর জেনারেল এমদাদ উল বারীসহ পরিবহনসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা।

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে নেতৃত্বকারী বিইউপি শিক্ষার্থী আব্দুল্লাহ রহমান জাগো নিউজকে বলেন, বিইউপির ১০ সদস্যের একটি দল মেয়রের সঙ্গে বৈঠকে বসেছে। বেলা ১টায় মেয়রের পক্ষ থেকে গাড়ি পাঠানো হয়, সেই গাড়িতে তার কার্যালয় যান প্রতিনিধি দলের সদস্যরা।

তিনি বলেন, আমাদের আট দফা ও নতুন করে তিন দফা দাবি নিয়ে মেয়রের সঙ্গে আলোচনা হবে। আবরার আহাম্মেদ চৌধুরীকে বাসচাপা দেয়া চালকের ফাঁসি কার্যকর, জাবলে নূর ও সু-প্রভাত পরিবহনের সব অনুমোদন বাতিল ও ঢাকার সব হকার উচ্ছেদ করে ঝুঁকিপূর্ণ এলাকায় ওভার ব্রিজ বা আন্ডারপাস নির্মাণের দাবি তোলা হবে।

আব্দুল্লাহ রহমান বলেন, এ তিনটি দাবি বাস্তবায়ন করা হলে আমরা আপাতত আন্দোলন স্থগিতের ঘোষণা দেবো। যদি দাবি পূরণ না হয়, তা হলে আন্দোলন অব্যাহত থাকবে। এসব বিষয় নিয়েই মেয়রের সঙ্গে প্রতিনিধি দল বৈঠক করছে। বৈঠক শেষে ফিরে পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা দেয়া হবে।

আন্দোলনের নেতৃত্বদানকারী একাধিক শিক্ষার্থী জানান, আগামীকাল বৃহস্পতিবার থেকে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন ৪৮ ঘণ্টা স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত হলেও তা বাতিল করা হয়েছে। আমাদের সহপাঠী ভাইকে যে হত্যা করেছে তার ফাঁসি নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত আমরা রাজপথ ছাড়ব না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার (১৯ মার্চ) সকাল ৭টার দিকে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের আওতাধীন প্রগতি সরণি এলাকায় সু-প্রভাত (ঢাকা-মেট্রো-ব-১১-৪১৩৫) বাসের চাপায় বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের (বিইউপি) শিক্ষার্থী আবরার আহাম্মেদ চৌধুরী নিহত হন। পরে সড়ক অবরোধ করে আন্দোলন শুরু করেন শিক্ষার্থীরা। এ সময় তারা আট দফা দাবি ঘোষণা করেন। বুধবার (২০ মার্চ) সকাল থেকেও রাজধানীর বিভিন্ন প্রান্তে শিক্ষার্থীরা সড়ক অবরোধ করে আন্দোলন চালিয়ে যান।

এমএইচএম/এএস/জেএইচ/পিআর

টাইমলাইন  

আপনার মতামত লিখুন :