প্রধানমন্ত্রীর সুদৃষ্টি চায় নিহত ফায়ারম্যান সোহেল রানার পরিবার

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:০০ পিএম, ০৯ এপ্রিল ২০১৯

বনানীর অগ্নিকাণ্ডে আহত হওয়ার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যাওয়া ফায়ারম্যান সোহেল রানার পরিবারের প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুদৃষ্টি কামনা করেছেন তার ছোট ভাই উজ্জল মিয়া। সোহেল রানার ছোট ভাই উজ্জল মিয়া বলেন, আমার ভাই ছিল পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি। তার মৃত্যুতে আমরা পথে বসে গেছি। আমরা চাই, প্রধানমন্ত্রী যাতে আমাদের পরিবারের প্রতি সুদৃষ্টি দেন।

মঙ্গলবার (৯ এপ্রিল) ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সদর দফতরে সোহেল রানার প্রথম জানাজা শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, আমার ভাই দেশের জন্য জীবন দিয়েছেন। সে ছোট বেলা থেকেই মানুষের জন্য কাজ করতো, পরোপকারী ছিল। সে দেশের জন্য জীবন দিয়েছে আমরা এতে গর্বিত। আমরা চাই সবাই যেন তার মতো দেশের জন্য কাজ করতে পারি। আমার ভাইয়ের যদি কোনো ভুল ত্রুটি থাকে তাহলে আপনারা তাকে ক্ষমা করে দেবেন। দোয়া করবেন, সে যেন জান্নাতবাসী হয়।

গত ২৮ মার্চ বনানীর কামাল আতাতুর্ক অ্যাভিনিউয়ের পাশের ১৭ নম্বর সড়কে ফারুক রূপায়ন (এফআর) টাওয়ারের ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে আটকা পড়াদের উদ্ধার করতে গিয়ে আহত হন ফায়ার সার্ভিস কর্মী সোহেল রান। পরে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে সিএমএইচে ভর্তি করা হয়। পড়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে সিঙ্গাপুরে নেয়া হয়।

সিঙ্গাপুর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার দিবাগত রাতে তার মৃত্যু হয়। সোহেলের নিহতের মাধ্যমে এফআর টাওয়ার অগ্নিকাণ্ডে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে ২৭ জনে দাঁড়াল।

এদিকে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামাম খান কামাল বলেছেন, সোহেল পরিবারের একজন উপার্জনক্ষম ব্যক্তি ছিল। ফায়ার সার্ভিসসহ আমরা সবাই তার পরিবারের প্রতি লক্ষ্য রাখব। তার পরিবারে যদি উপযুক্ত কেউ থাকে তাকে একটি চাকরি দেয়ার ব্যবস্থা করা হবে।

এআর/আরএস/এমকেএইচ