রমজানে লোডশেডিং হবে না : তৌফিক-ই-ইলাহী

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:৪৪ পিএম, ১১ এপ্রিল ২০১৯

আসন্ন রমজান ও চলতি গ্রীষ্ম মৌসুম লোডশেডিংমুক্ত থাকবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিষয়ক উপদেষ্টা তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী।

বৃহস্পতিবার (১১ এপ্রিল) সচিবালয়ে আসন্ন রমজান ও চলতি গ্রীষ্ম মৌসুমে বিদ্যুৎ সরবরাহ পরিস্থিতি নিয়ে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় তিনি এ কথা জানান। বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

তিনি বলেন, ‘কারিগরি কারণে মাঝে মাঝে বিভ্রাট হতে পারে কিন্তু কিছুতেই লোডশেডিং করার প্রয়োজন হবে না।’

বাসাবাড়িতে যেসব ইলেকট্রিশিয়ান কাজ করে তাদের প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ ও সনদ প্রদানের ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বিদ্যুৎ বিভাগকে নির্দেশনা দেন তিনি।

সভায় আসন্ন রমজানে দোকানপাট, মার্কেট ও বিপণি-বিতান খোলা রাখার বিষয়ে বিদ্যমান আইন অনুসরণের কথা বলা হয়। চলতি গ্রীষ্ম মৌসুম ও আসন্ন রমজানে বিদ্যুৎ স্বাভাবিক রাখতে গ্যাস সরবরাহ বৃদ্ধি, সুপার মার্কেট, পেট্রল পাম্প ও সিএনজি গ্যাস স্টেশনে প্রয়োজনের অতিরিক্ত বাতি ব্যবহার না করা, ইফতার ও তারাবির নামাজে এসি ব্যবহার সীমিত রাখা, বিদ্যুতের অপচয় রোধে এলইডি বাল্ব ব্যবহার, কোনো এলাকায় লোডশেডিং করতে হলে গ্রাহককে আগেই অবহিত করা, টেকনিক্যাল কারণে বা অন্য কোনো কারণে যেন লোডশেড না হয় সেই বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের সজাগ থাকার জন্য বলা হয়।

ইফতার, তারাবি ও সেহরির সময় লোডশেডিং না করা, পিক আওয়ারে চাহিদা অনুযায়ী বিদ্যুৎ উৎপাদনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ, বিকাল ৫টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত সিএনজি পাম্প বন্ধ রাখা (জ্বালানি বিভাগকে অনুরোধ) ইত্যাদি বিষয়ে সভায় আলোচনা ও পর্যালোচনা করা হয়।

বিদ্যুৎ বিভাগের সিনিয়র সচিব আহমেদ কায়কাউস বলেন, ‘বিদ্যুতের চাহিদার চেয়ে উৎপাদন সক্ষমতা বেশি রয়েছে। রমজানে সন্ধ্যার সময় হঠাৎ করে চাহিদা ব্যাপক বেড়ে যায়।’

দোকান বা বাসাবাড়িতে ব্যবহৃত বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম নিয়মিত পরীক্ষার অনুরোধ জানিয়ে তিনি বলেন, ‘এতে দুর্ঘটনা বহুলাংশে কমে যাবে।’

সভায় দোকান মালিক সমিতি ‘অন্ধকার থেকে আলোকিত বাংলাদেশ, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞ সারাদেশ’ শিরোনামে ৫০ পাউন্ডের একটি কেক কেটে বিদ্যুৎ বিভাগ ও প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।

এ সময় দোকান মালিক সমিতির সভাপতি মো. হেলাল উদ্দিন, মহাসচিব মো. জহিরুল হক ভূইয়াসহ বিদ্যুৎ বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

আরএমএম/এএইচ/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :