বনানীতে শোকের ছায়া

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০১:৩০ পিএম, ২৪ এপ্রিল ২০১৯

আট বছর বয়সী শিশু জায়ান চৌধুরী। গত রোববার সকালে শ্রৗলঙ্কায় বোমা হামলায় প্রাণ গেছে তার।

বানানীর ২/এ রোডের ৯ নম্বর বাসা। নানার এই বাসাতেই থাকত জায়ান। এ বাসার আশপাশের সব বাসার লোকজনের কাছে প্রিয় ছিল সে। প্রতিদিন বিকেল হলেই ব্যাট-বল হাতে নিয়ে বাসার নিচে অথবা লোক কম থাকলে রাস্তাতেই ক্রিকেট খেলত জায়ান।

তার এমন মৃত্যু কেউ মেনে নিতে পারছে না। মা-বাবা, আত্মীয়-স্বজনসহ বনানীর ওই এলাকার সব বাসার লোকেরাই শোকে কাতর।

আরও পড়ুন>> ছোট্ট জায়ান ঘুমাবে বলে...

জায়ানকে চিরঘুম পাড়ানো হবে আজ। তার নিথর দেহ দেশে পৌঁছেছে। আজ দুপুর ১২টা ৪৫ মিনিটে শ্রীলঙ্কা থেকে বিমানযোগে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছে তার মরদেহ। সেখান থেকে বনানীতে নানার তথা শেখ সেলিমের বাসভবনে নিয়ে যাওয়া হবে তাকে। বাদ আসর বনানীর চেয়ারম্যানবাড়ি মাঠে তার নামাজে জানাজা হবে। দাফন করা হবে বনানী কবরস্থানে।

jayan-2.jpg

এ জন্য বনানীর বিভিন্ন রাস্তায় জায়ান চৌধুরীর পেস্টার সম্বলিত ব্যানার, শেখ হাসিনাকে চুম্বনরত জায়ান চৌধুরীর পোস্টার, ব্যানার মানুষের মনে আরও বেশি দাগ কেটেছে।

আরও পড়ুন>> হারানোর বেদনায় অশ্রুসিক্ত ভাই-বোন

বিভিন্ন রাস্তায় ঝুলানো এসব ব্যানার জায়ান চৌধুরীকে আরেও বেশি মনে করে দিচ্ছে বনানীবাসীকে।

উল্লেখ্য, রোববার (২১ এপ্রিল) শ্রীলঙ্কায় ভয়াবহ বোমা হামলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ফুফাতো ভাই শেখ সেলিমের মেয়ে জামাই মশিউল হক চৌধুরী গুরুতর আহত হন। নিহত হয় তার নাতি জায়ান চৌধুরী। উত্তরায় সানবিম স্কুলের দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র ছিল জায়ান।

শ্রীলঙ্কার ওইদিনের সিরিজ বোমা হামলায় এখন পর্যন্ত ৩৫৯ জন নিহত হয়েছেন। এর দায় স্বীকার করেছে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস)। ওই হামলায় আহত হন অন্তত পাঁচ শতাধিক মানুষ। সেদিনের সকালে শ্রীলঙ্কার তিনটি গির্জা, তিনটি বিলাসবহুল হোটেল ও দুটি স্থাপনায় সংঘবদ্ধ বোমা হামলা চালানো হয়। নিহতদের মধ্যে অন্তত ৩৮ জন বিদেশি নাগরিক।

এফএইচএস/জেডএ/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :