অপহরণের ৩০ ঘণ্টা পর উদ্ধার শিক্ষা কর্মকর্তা সারোয়ার

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:৩৫ পিএম, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯

অপহরণের ৩০ ঘণ্টা পর নারায়ণগঞ্জের তোলারাম কলেজের দর্শন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক সারোয়ার জাহান কিরণকে জীবিত উদ্ধার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

গত বুধবার সন্ধ্যায় কল্যাণপুর এলাকা থেকে নিখোঁজের পর বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে মিরপুর ৬০ ফিটের দক্ষিণ মনিপুর এলাকা থেকে তাকে উদ্ধার করে র‌্যাব-৪ এর একটি দল। অপহরণের সঙ্গে জড়িত অভিযোগে চক্রের পাঁচ সদস্যকে আটক করা হয়েছে।

আটকরা হলেন, মোরশেদ (৩৩), ফাহিম সাদমান (১৯), নাফিজ খান (১৯), শাহনাজ নাজনীন (৩৫) ও সাবিনা নাজনীন (২৮)।

র‌্যাব-৪ এর এএসপি ( অপস অ্যান্ড মিডিয়া) সাজেদুল ইসলাম সজল বলেন, সারোয়ার জাহান বুধবার সন্ধ্যায় কল্যাণপুরের বাসা থেকে বের হওয়ার পর নিখোঁজ হন। তার পরিবার বৃহস্পতিবার সকালে র‌্যাব-৪ এর কাছে নিখোঁজের বিষয়ে অভিযোগ জানালে আমাদের আভিযানিক টিম অভিযানে নামে।

অপহরণের পর সারোয়ার জাহানের মোবাইল থেকেই মুক্তিপণের টাকা চাওয়া হচ্ছিল। একপর্যায়ে তার মোবাইলও বন্ধ পাওয়া যায়। মারধরের শব্দ শুনিয়ে আতঙ্ক তৈরি করে ভুক্তভোগীর পরিবারের কাছ থেকে দুটি বিকাশ নম্বরে মোট ৪০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয় চক্রটি। এ ছাড়া চক্রের সদস্যরা শপিংমলে অপহৃতের ক্রেডিটকার্ড ব্যবহার করে শপিংও করে।

তিনি বলেন, আমরা অভিযোগ পাবার পর ৩০ ঘণ্টার মধ্যে তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় মিরপুরের ৬০ ফিট রাস্তার পাশে দক্ষিণ মণিপুরের একটি বাসা থেকে তাকে উদ্ধার করি। এ সময় সংঘবদ্ধ অপহরণকারী চক্রের পাঁচ সদস্যকে আটক করা হয়। তখন তাদের কাছ থেকে ক্যাশমেমো, ২টি ক্রেডিটকার্ড, ৭টি মোবাইল ফোন ও একটি মোটরসাইকেল জব্দ করা হয়।

আটকদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলেও জানান তিনি।

জেইউ/এমকেএইচ