‘গ্লুকোমিটার স্ট্রিপ' কিনতে চীন যাচ্ছেন ৭ কর্মকর্তা

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৪:২৭ পিএম, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯

প্রাচীন একটি প্রবাদ রয়েছে 'জ্ঞান অর্জনের জন্য সুদূর চীনে যাও।' সেই প্রবাদ মনে রেখেই ডায়াবেটিস পরীক্ষার গ্লুকোমিটার স্ট্রিপ কেনার আগে প্রি-শিপমেন্ট ইন্সপেকশনে চীনে যাচ্ছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের দুই যুগ্ম সচিবের নেতৃত্বে সাত সদস্যের দুটি পৃথক দল।

যে কোম্পানি থেকে লোকো মাস্টার স্ট্রিপ কেনা হবে সেই কোম্পানির খরচে তারা চীন সফরে যাচ্ছেন।

১৫ থেকে ২০ সেপ্টেম্বর অথবা নিকটবর্তী কোনো দিনে এ কর্মকর্তারা যে কোম্পানি থেকে গ্লুকোমিটার স্ট্রিপ কেনা হবে সে কোম্পানি পরিদর্শনে যাবেন।

গত ১২ সেপ্টেম্বর স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সরকারি হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা-২ যুগ্ম সচিব তপন কুমার বিশ্বাস স্বাক্ষরিত পৃথক দুই চিঠিতে এ তথ্য জানানো হয়।

চিঠিতে বলা হয়, রাজধানীর তেজগাঁওয়ে সেন্ট্রাল মেডিকেল স্টোর ডিপোর (সিএমএসডি) প্যাকেজ ১৮২২ ও ১৮০১ এর আওতায় গ্লুকোমিটার স্ট্রিপ কেনার আগে চীনের ইম্পেক্স (ই এম পি সি এস) মেডিকেল সার্ভিসেস কোম্পানি লিমিটেড নামক কোম্পানিটি প্রি-শিপমেন্ট ইন্সপেকশনে যাবেন ওই কর্মকর্তারা।

চার সদস্যের একটি টিমে রয়েছেন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের যুগ্ম সচিব মোহাম্মদ মঈন উদ্দীন চৌধুরী, স্বাস্থ্য অধিদফতরের লাইন ডিরেক্টর (এনসিডিসি) ডাক্তার নূর মোহাম্মদ, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের এন্ডোক্রাইনোলজি বিভাগের প্রধান প্রফেসর ডাক্তার মো. আব্দুল জলিল আনসারী ও সিএমএসডিএস সহকারী পরিচালক (আইএসএম) ডাক্তার মো. সেলিম মিয়া।

অন্য টিমে রয়েছেন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের যুগ্ম সচিব ডাক্তার এ এম পারভেজ রহিম, স্বাস্থ্য অধিদফতরের সহকারী পরিচালক ও ডেপুটি প্রোগ্রাম ম্যানেজার (এনসিডিসি) ডাক্তার আব্দুল আলিম ও সিএমএসডিএস ডেস্ক অফিসার (ডেস্ক-৪) মাজেদা বেগম।

চিঠিতে চুক্তির শর্তে বলা হয়, তাদের বিদেশে অবস্থানকালীন সময়ে ডিউটিতে রয়েছেন বলে গণ্য হবে। সরকারি নিয়ম অনুসারে তারা প্রাপ্ত ভাতা গ্রহণ করবেন। প্রে-শিপমেন্ট ইনস্পেকশন শেষে তারা একটি প্রতিবেদন দাখিল করবেন।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বশীল এক কর্মকর্তা বলেন, কোম্পানির টাকায় প্রে-শিপমেন্ট ইনস্পেকশনে গিয়ে পণ্যের গুণগত মান ভালো কি মন্দ এ সম্পর্কে সঠিক প্রতিবেদন দাখিল করা আদৌ সম্ভব কিনা ভেবে দেখতে হবে। ডায়াবেটিস নির্ণয়ে রক্ত পরীক্ষার জন্য গ্লুকোমিটার স্ট্রিপ কিনতে সাত জনের বহর যেতে হবে কেন? এ ধরনের সফরকে অনৈতিক বলে মন্তব্য করেন তিনি।

এমইউ/এএইচ/জেআইএম