আদালতের আদেশ অমান্য করায় চট্টগ্রাম জেল সুপারকে শোকজ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক চট্টগ্রাম
প্রকাশিত: ০৯:০৫ পিএম, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯
জাকির হোসেন সানি

চট্টগ্রামে কিশোর জাকির হোসেন সানি হত্যার দায়ে অভিযুক্ত দুই কিশোর আসামিকে আদালতের আদেশ মেনে কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রে না পাঠানোয় চট্টগ্রামের জেল সুপার কামাল হোসেনকে শোকজ করেছেন আদালত।

বুধবার বিকেলে চট্টগ্রামের নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইবুনাল-৬ এর বিচারক মো. মাঈন উদ্দীন এ আদেশ দেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আসামি পক্ষের আইনজীবী এডভোকেট সেলিম উল্লাহ চৌধুরী।

তিনি জানান, নগরের এমইএস কলেজের সামনে ছুরিকাঘাতে স্কুলছাত্র নিহতের ঘটনায় অভিযুক্ত আসামিদের শিশু গণ্য করে গাজীপুর কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রে পাঠানোর আদেশ দিয়েছিলেন বিচারক মাঈন উদ্দীন। কিন্তু আদালতের সে আদেশ অমান্য করে কিশোর আসামিদের কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্র প্রেরণ না করে চট্টগ্রাম জেলখানায় রাখা হয়। আজ নির্ধারিত শুনানির দিনে বিষয়টি আদালত জানতে পেরে চট্টগ্রাম জেল সুপারকে শোকজ করেছেন আদালত।

এ বিষয়ে কথা বলতে চট্টগ্রাম জেল সুপার কামাল হোসেনের মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও সংযোগ স্থাপন করা যায়নি।

এদিকে আসামি পক্ষের আইনজীবী এডভোকেট সেলিম উল্লাহ চৌধুরী জানান, সানি হত্যা মামলায় তদন্তকারী কর্মকর্তা আজ আসামিদের সাতদিনের রিমাণ্ড আবেদন করেছিলেন। শুনানি শেষে আদালত অভিযুক্ত দুই কিশোর সৈয়দ সাফাত কায়সার (১৭) ও সাব্বিরকে (১৭) গাজীপুর কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রে পিতা-মাতা অথবা নিকটতম আত্মীয় ও কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রের তত্ত্বাবধায়ক উপস্থিতি তদন্ত কর্মকর্তাকে এক দিনের জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি প্রদান করেন। আগামী ১৫ দিনের মধ্যে এ জিজ্ঞাসাবাদ শেষ করতেও সময় বেধে দিয়েছেন আদালত।

প্রসঙ্গত, গত ২৬ আগস্ট দুপুরে নগরের ওমরগণি এমইএস কলেজে ছাত্রলীগের দুই পক্ষে বিরোধের জেরে ছুরিকাঘাতে খুন হন স্কুলছাত্র জাকির হোসেন সানি। ২৭ আগস্ট সানির বড় বোন মাহমুদা আক্তার ইন্নি বাদি হয়ে খুলশী থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। ওই মামলায় সাতজনের নাম উল্লেখ করে ১৫ থেকে ২০ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করা হয়। পরে নগরের বিভিন্ন এলাকা থেকে কিশোর কায়সার ও সাব্বিরকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

আবু আজাদ/এমএসএইচ/এমএস