বিটিভি-বেতারে শিল্পী সম্মানী বাড়ছে

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:৩৫ পিএম, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯

রাষ্ট্রায়ত্ত গণমাধ্যম বাংলাদেশ টেলিভিশন (বিটিভি) ও বাংলাদেশ বেতারের শিল্পী সম্মানী বাড়ছে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ।

রোববার সচিবালয়ে বাংলাদেশ টেলিভিশন ও বেতারের তালিকাভুক্ত শিল্পীদের সংগঠন ‘বাংলাদেশ টেলিভিশন-বেতার শিল্পী সংস্থা’র নেতাদের সঙ্গে বৈঠকের শুরুতে তথ্যমন্ত্রী এ কথা বলেন। এরে আগে নেতারা শিল্পী সম্মানী বাড়ানোর দাবি জানান।

এ সময় শিল্পী সংস্থার সভাপতি নাট্যকার ও অভিনেতা ইনামুল হক ও সাধারণ সম্পাদক সাইফুল আজম বাশারসহ অন্যান্য নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

শিল্পীদের উদ্দেশে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘মানবিক রাষ্ট্র গঠন করার জন্য শিল্পীদের বিরাট ভূমিকা পালন করার সুযোগ রয়েছে। আপনারা সেই কাজ করে যাচ্ছেন। শিল্পীরা অনেকেই তাদের অভাব-অভিযোগ কাউকে জানতে দেয় না। জানতে না দিয়েই নিজের বেদনা-যাতনা গোপন করে অন্যকে আনন্দ দেয়, সমাজকে সঠিক খাতে প্রবাহিত করার ক্ষেত্রে সহায়তা করে।’

হাছান মাহমুদ বলেন, ‘আপনাদের দাবি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো। তবে একটি দাবির বিষয়ে আমি পুরোপুরি একমত যে, শিল্পী সম্মানী বাড়াতে হবে। শিল্পী সম্মানী বাড়ানো হবে।’

একটি লিখিত দাবিনামা মন্ত্রীর হাতে তুলে দেন শিল্পী সংস্থার নেতারা। সেখানে বলা হয়, বাংলাদেশ বেতারে উচ্চ গ্রেডের একজন শিল্পী তার পরিবেশনার জন্য এক হাজার ৩৫০ টাকা সম্মানী পান এবং অন্যান্য মাধ্যমে সম্মানী আরও কম।

তারা গীতিকারদের সম্মানী দেয়া ও পুনঃপ্রচারের ক্ষেত্রে রয়্যালটি দেয়ারও দাবি জানান শিল্পীরা।

লিখিত দাবিনামায় বিটিভির নানা অনিয়ম তুলে ধরে বলা হয়, বিটিভিতে প্রচলিত নীতিমালা অনুসরণ করা হচ্ছে না। অনুষ্ঠানের বাজেট বরাদ্দের ক্ষেত্রে একই ধরনের এবং সময়কালের অনুষ্ঠানের জন্য ভিন্ন ভিন্ন বাজেট বরাদ্দ করা হয়। এক্ষেত্রে ব্যক্তিগত পছন্দ-অপছন্দকে গুরুত্ব দেয়া হয়।

বিটিভির তালিকাভুক্ত নয় এমন শিল্পীদের অনুষ্ঠানের জন্য নির্বাচন করা হয় বলেও জানান শিল্পীরা।

আরএমএম/এনএফ/জেআইএম