নিকলিতে ১২৩ মিলিমিটার বৃষ্টি

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২:৪০ পিএম, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯

বেশ কয়েক দিন দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে মৃদু দাবদাহ বয়ে যাচ্ছিল। বৃষ্টির দেখাও ছিল না খুব একটা। কিছু জায়গায় বৃষ্টি হলেও তার পরিমাণ ছিল কম। গতকাল রোববার (২২ সেপ্টেম্বর) থেকে সেই অবস্থার পরিবর্তন হয়েছে। দেশের অধিকাংশ অঞ্চলে বৃষ্টি হয়েছে, হচ্ছে। এই অবস্থা আরও দুই-একদিন বিরাজ করতে পারে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

এই অবস্থায় সোমবার (২৩ সেপ্টেম্বর) ভোর ৬টার আগের ২৪ ঘণ্টার তথ্য অনুযায়ী, কিশোরগঞ্জের নিকলিতে সবচেয়ে বৃষ্টি হয়েছে, ১২৩ মিলিমিটার। শরৎকালের এই সময়টাতে আর কোথাও এত বৃষ্টি বা এর কাছাকাছিও হয়নি। এই সময়ে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বৃষ্টি হয়েছে চুয়াডাঙ্গায়, ৫০ মিলিমিটার, এরপর কক্সবাজারে ৪০ মিলিমিটার।

আগামী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে সোমবার সকাল ৯টায় আবহাওয়া অফিস জানায়, মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের উপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে তা দুর্বল থেকে মাঝারি অবস্থায় রয়েছে। এর প্রভাবে রংপুর, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল, ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগের অনেক জায়গায় এবং ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সাথে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বৃষ্টি হতে পারে।

সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস পেতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

আগামী ৩ দিনের আবহাওয়ার অবস্থায় বলা হয়েছে, এই সময়ের শেষের দিকে বৃষ্টি/বজ্রসহ বৃষ্টির প্রবণতা কমতে পারে।

ঢাকায় সোমবার সূর্য ডুববে সন্ধ্যা ৫টা ৫৫ মিনিটে এবং মঙ্গলবার সূর্য উঠবে ভোর ৫টা ৪৮ মিনিটে।

পিডি/বিএ/পিআর