সেপ্টেম্বরে ভালো কাজের পুরস্কার পেলেন যারা

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:৩৫ পিএম, ১২ অক্টোবর ২০১৯

ঢাকা মহানগরের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা ও জননিরাপত্তা বিধানসহ ভালো কাজের স্বীকৃতি হিসেবে ডিএমপি’র বিভিন্ন পর্যায়ের পুলিশ সদস্যকে নগদ অর্থ দিয়ে পুরস্কৃত করলেন ডিএমপি’র কমিশনার শফিকুল ইমলাম। শনিবার বেলা ১১টায় ডিএমপি হেডকোয়ার্টার্সে সেপ্টেম্বরের মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভায় ভালো কাজের স্বীকৃতি হিসেবে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিজয়ীদের হাতে নগদ অর্থ পুরস্কার তুলে দেন কমিশনার।

সেপ্টেম্বর, ২০১৯ মাসে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের শ্রেষ্ঠ অপরাধ বিভাগ নির্বাচিত হয়েছে লালবাগ বিভাগ, শ্রেষ্ঠ সহকারী পুলিশ কমিশনার এসএম শামীম, সহকারী পুলিশ কমিশনার (পল্লবী জোন), শ্রেষ্ঠ পুলিশ পরিদর্শক (অফিসার ইনচার্জ) মাজহারুল ইসলাম, অফিসার ইনচার্জ, যাত্রাবাড়ী থানা, শ্রেষ্ঠ পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. ফারুকুল আলম, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত), কাফরুল থানা, শ্রেষ্ঠ পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশনস্) সজীব দে, পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশনস্) খিলগাঁও থানা, শ্রেষ্ঠ এসআই যৌথভাবে এসআই এসএম এনামুল হক, সদরঘাট পুলিশ ফাঁড়ি ও এসআই মো. সাইফুল ইসলাম, ওয়ারী থানা, শ্রেষ্ঠ এএসআই যৌথভাবে এএসআই মো. হেলাল উদ্দিন, মতিঝিল থানা ও এএসআই এমএ রিয়াজ, পল্লবী থানা, শ্রেষ্ঠ ওয়ারেন্ট তামিলকারী অফিসার এএসআই মো. হেলাল উদ্দিন, মতিঝিল থানা, শ্রেষ্ঠ মাদক উদ্ধারকারী অফিসার মাজহারুল ইসলাম, অফিসার ইনচার্জ, যাত্রাবাড়ী থানা ও শ্রেষ্ঠ চোরাই গাড়ি উদ্ধারকারী অফিসার এসআই মো. শহিদুল ইসলাম, মিরপুর মডেল থানা।

police

ডিএমপি’র গোয়েন্দা বিভাগের শ্রেষ্ঠ বিভাগ নির্বাচিত হয়েছে গোয়েন্দা উত্তর বিভাগ, শ্রেষ্ঠ সহকারী পুলিশ কমিশনার মাহবুবুল আলম, সহকারী পুলিশ কমিশনার, অবৈধ মাদক উদ্ধার টিম, ডিবি-উত্তর, চোরাই গাড়ি উদ্ধারে শ্রেষ্ঠ টিম কায়সার রিজভী কোরায়েশী, সহকারী পুলিশ কমিশনার, গাড়ি চুরি উদ্ধার ও প্রতিরোধ টিম ডিবি-উত্তর বিভাগ, অস্ত্র উদ্ধারে শ্রেষ্ঠ টিম শামসুল আরেফিন, সহকারী পুলিশ কমিশনার, রমনা জোনাল টিম ডিবি-দক্ষিণ, মাদকদ্রব্য উদ্ধারে শ্রেষ্ঠ টিম মাহবুবুল আলম, সহকারী পুলিশ কমিশনার, অবৈধ মাদক উদ্ধার টিম, ডিবি-উত্তর।
ডিএমপি’র ট্রাফিক বিভাগের শ্রেষ্ঠ বিভাগ নির্বাচিত হয়েছে ট্র্রাফিক-উত্তর বিভাগ, শ্রেষ্ঠ সহকারী পুলিশ কমিশনার হুমায়ুন কবির, সহকারী পুলিশ কমিশনার, রামপুরা ট্রাফিক জোন, শ্রেষ্ঠ ট্রাফিক ইন্সপেক্টর বিপ্লব ভৌমিক, ইন্সপেক্টর, রামপুরা ট্রাফিক জোন, শ্রেষ্ঠ সার্জেন্ট যৌথভাবে সার্জেন্ট সাহানা আক্তার রমনা ট্রাফিক জোন ট্রাফিক-দক্ষিণ বিভাগ ও সার্জেন্ট তানভীর হাসান, মিডিয়া শাখা, ট্রাফিক-পূর্ব বিভাগ।

সেপ্টেম্বর, ২০১৯ মাসে বিট পুলিশিং কার্যক্রম সংক্রান্তে পুরস্কারপ্রাপ্তরা হলেন, মোহাম্মদ নুরুল আমিন পিপিএম অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (ওয়ারী জোন), হাসিনুজ্জামান, সিনিঃ সহকারী পুলিশ কমিশনার (ধানমন্ডি জোন), সামসুজ্জামান, সিনি. সহকারী পুলিশ কমিশনার (ওয়ারী জোন), শাহীন ফকির, অফিসার ইনচার্জ, বংশাল থানা, সিদ্দিকুর রহমান অফিসার ইনচার্জ, ডেমরা থানা ও ইকরাম আলী, অফিসার ইনচার্জ, হাজারীবাগ থানা।
ট্রাফিক সচেতনতামূলক কর্মসূচির জন্য বিশেষ পুরস্কারপ্রাপ্তরা হলেন-গোবিন্দ চন্দ্র পাল, অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার, ট্রাফিক উত্তর এবং এস এম বজলুর রশিদ, সহকারী পুলিশ কমিশনার, ট্রাফিক পূর্ব।
বিশেষ ক্যাটাগরিতে পুরস্কারপ্রাপ্তরা হলেন, আইএডি বিভাগ ও স্পেশাল অ্যাকশন গ্রুপ ।

police

বিশেষ পুরস্কার পেলেন যারা তারা হলেন- (স্বর্ণ চুরি মামলার আসামী গ্রেফতার) মহরম আলী, অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার, গোয়েন্দা (উত্তর) বিভাগ, (প্রতারক গ্রেফতার) শাহিদুর রহমান, পিপিএম, অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার, গোয়েন্দা পূর্ব বিভাগ, (সংঘবন্ধ প্রতারক চক্র গ্রেফতার) বদরুজ্জামান জিল্লু, অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার, গোয়েন্দা উত্তর, (আন্তর্জাতিক প্রতারক গ্রেফতার) জুনায়েদ আলম, অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার, গোয়েন্দা উত্তর বিভাগ, (অশ্লীল ভিডিও ফেসবুকে প্রচারকারী গ্রেফতার) মোঃ শাহাদাত হোসেন সুমা বিপিএম, অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার, গোয়েন্দা পশ্চিম বিভাগ, (ই-মেইল হ্যাককারী গ্রেফতার) আজহারুল ইসলাম মুকুল, অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার, সাইবার সিকিউরিটি এন্ড ক্রাইম বিভাগ, (ছিনতাইকারী চক্র গ্রেফতার) গোলাম সাকলায়েন বিপিএম, অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার, গোয়েন্দা উত্তর বিভাগ, (কিশোর গ্যাং গ্রেফতার) হাফিজ আল আসাদ, গোয়েন্দা পশ্চিম, (মোবাইল চোর গ্রেফতার) এসএম শামীম, সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার , পল্লবী জোন, (হত্যা মামলার আসামী গ্রেফতার) আশরাফউল্লাহ, সিরিয়াস ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন বিভাগ, (অশ্লীল ভিডিও ফেসবুকে প্রচারকারী গ্রেফতার) ইশতিয়াক আহমেদ পিপিএম, সাইবার সিকিউরিটি এন্ড ক্রাইম বিভাগ, (কিশোর অপরাধী গ্রেফতার) খন্দকার মোহাম্মদ হেলাল উদ্দীন, পুলিশ পুরিদর্শক (তদন্ত), লালবাগ থানা।

(ডাকাত গ্রেফতার) জাহিদুর রহমান, পুলিশ পরিদর্শক, গোয়েন্দা উত্তর, (অপহরণকারী গ্রেফতার) আমিনুল ইসলাম পিপিএম, পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশনস), গুলশান থানা, (প্রতারণাকারী গ্রেফতার) মোহাম্মদ জাহিদুল ইসলাম, পুলিশ পরিদর্শক, গোয়েন্দা উত্তর বিভাগ, (প্রতারণাকারী গ্রেফতার) শাহজাহান মন্ডল, পুলিশ পরিদর্শক, সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম বিভাগ, (ধর্ষণ মামলার আসামী গ্রেফতার) মুহাম্মদ জাহেদুর রহমান, পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশনস) শাহআলী থানা, (অপহরণকারী গ্রেফতার) তৃপ্তি খান, পুলিশ পরিদর্শক, উইমেন সাপোর্ট অ্যান্ড ইনভেস্টিগেশন বিভাগ, (ফেসবুকে অশ্লীল ছবি পোস্টকারী গ্রেফতার) নাজমুল নিশাত, পুলিশ পরিদর্শক, সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম বিভাগ, (গরু চোর গ্রেফতার) বিপ্লব ভৌমিক, টিআই, ডেমরা জোন, (মোটরসাইকেল ছিনতাইকারী গ্রেফতার) এসআই জাহাঙ্গীর আলম, শাহবাগ থানা, (ভারতীয় রুপিসহ গ্রেফতার) এসআই সুজন কুমার তালুকদার, পল্টন থানা, (চুরি হওয়া টাকা উদ্ধার) এআই শাহ আলম, পল্টন থানা, (চোরাইমাল উদ্ধারসহ আসামী গ্রেফতার) এসআই এস. এম সালেহীন, সূত্রাপুর থানা, (ভিকটিম উদ্ধারসহ অপহরণকারী গ্রেফতার) এসআই অলোক কুমার বিশ্বাস, সূত্রাপুর থানা, (অপহরণকারী গ্রেফতার) এসআই মোহাম্মদ আশরাফুল হক, কামরাঙ্গীরচর থানা, (চোরাইমাল উদ্ধারসহ আসামি গ্রেফতার) এসআই ফাহেয়াত উদ্দীন রক্তিম, গুলশান থানা, (লুণ্ঠিত মালামাল উদ্ধারসহ আসামী গ্রেফতার) এসআই রেজাউল করিম, ডেমরা থানা, (হত্যা মামলার আসামি গ্রেফতার) এসআই আরিফুল ইসলাম, মতিঝিল থানা।

police

(ছিনতাইকৃত মোটরসাইকেল উদ্ধারসহ আসামী গ্রেফতার) এসআই বিজন কুমার বিশ্বাস, খিলগাঁও থানা, (অজ্ঞান পার্টির সদস্য গ্রেফতার) এসআই হায়াত আলী খন্দকার, শাহজাহানপুর থানা, (চোরাইমাল উদ্ধারসহ আসামী গ্রেফতার) এসআই আঃ কুদ্দুস, ডেমরা থানা, এসআই আল আমিন, তেজগাঁও থানা, (অপহরণকারী গ্রেফতার) এসআই তারেক জাহান খান, মোহাম্মদপুর থানা, (ভিকটিম উদ্ধারসহ আসামী গ্রেফতার) এসআই গৌতম কুমার শীল, খিলক্ষেত থানা, এসআই জালাল উদ্দিন খান, শাহআলী থানা, (অপহৃত ভিকটিম উদ্ধার) এসআই পলাশ, ধানমন্ডি থানা, (চোরাই মালামালসহ আসামী গ্রেফতার) এসআই ফারুক হোসেন, ভাটারা থানা, (লুণ্ঠিত মালামাল উদ্ধারসহ আসামী গ্রেফতার) এসআই জুলহাস মিয়া, বাড্ডা থানা, এসআই হাসান মাসুদ, ভাটারা থানা, (ভুয়া সেনা সদস্য গ্রেফতার) এসআই এমদাদুল হক, কাফরুল থানা, (চোর গ্রেফতার) এসআই বায়োজীদ বোস্তামী, গুলশান থানা, (ছিনতাইকারী গ্রেফতার) সার্জেন্ট অনিক ইসলাম, ট্রাফিক পূর্ব, সার্জেন্ট নাসিম আহমেদ, ট্রাফিক পূর্ব, (ভিকটিম উদ্ধারসহ অপহরণকারী গ্রেফতার) নারী এসআই সাদিয়া শারমীন, উইমেন সাপোর্ট এন্ড ইনভেস্টিগেশন বিভাগ, (ভূয়া ম্যাজিস্ট্রেট গ্রেফতার) সার্জেন্ট নুর তাজুল ইসলাম, ট্রাফিক পূর্ব বিভাগ, (ছিনতাইকারী গ্রেফতার) শিক্ষানবিশ সার্জেন্ট খন্দকার মহিউদ্দিন ফারুক, ট্রাফিক পূর্ব বিভাগ, শিক্ষানবিশ সার্জেন্ট মাসুদ শেখ, ট্রাফিক পূর্ব বিভাগ এবং (হত্যা মামলার আসামী গ্রেফতার) কং/ নজরুল ইসলাম, বাড্ডা থানা।

আরএম/জেএইচ/এমকেএইচ