‘অটোরিকশা মালিকদের ধর্মঘট অবশ্যই প্রত্যাহার করা উচিত’

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:১৩ পিএম, ১৪ অক্টোবর ২০১৯

দৈনিক জমা বাড়ানোর দাবিতে অটোরিকশা মালিকদের ডাকা ধর্মঘট অবশ্যই প্রত্যাহার করা উচিত বলে জানিয়েছে ঢাকা-চট্টগ্রাম জেলা সিএনজি অটোরিকশা শ্রমিক ঐক্য পরিষদ। সেই সঙ্গে রাজধানীতে আগামীকাল (মঙ্গলবার) থেকে ডাকা টানা ৭২ ঘণ্টার সিএনজি ধর্মঘট প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছেন তারা।

সোমবার (১৪ অক্টোবর) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত এক বিক্ষোভ সমাবেশে এ আহ্বান জানানো হয়।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, যে অটোরিকশা মালিকরা মামলা করে চালকদের জন্য বরাদ্দকৃত রিকশা বিতরণ প্রক্রিয়া দীর্ঘ ১২ বছর ধরে আটকে রেখেছিল, হটকারী করে ধর্মঘট ডেকে তারা দৈনিক জমা বাড়ানোর পাঁয়তারা করছে। অটোরিকশা মালিকরা ধর্মঘটের নামে অস্থিতিশীলতা তৈরি করে দুর্বল শ্রমিকদের ওপর দায় চাপানোর ষড়যন্ত্র করছে।

তারা আরও বলেন, আগামী ১৫, ১৬ ও ১৭ অক্টোবর ঢাকায় সিএনজিচালিত অটোরিকশা চলাচল নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি। একইসঙ্গে ওই দিনগুলোতে যাত্রীসেবা নিশ্চিত করতে যথানিয়মে অটোরিকশা চালানোর জন্য চালক ভাইদের প্রতি আহ্বান জানাই।

বক্তারা বলেন, ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মাধ্যমে মালিকদের অতিরিক্ত হারে জমা নেয়া, প্রাইভেট সিএনজি অটোরিকশা ও কারের বাণিজ্যিক ব্যবহার বন্ধ এবং চালকদের মধ্যে ঢাকায় পাঁচ হাজার ও চট্টগ্রামে চার হাজার সিএনজি-অটোরিকশা অনুমোদনসহ শ্রমিকদের আট দফা দাবি আদায় আমাদের করতে হবে।

বিক্ষোভ সমাবেশে সংগঠনের আহ্বায়ক রফিকুল ইসলামসহ সাধারণ চালকরা উপস্থিত ছিলেন। এর আগে ভাড়া বৃদ্ধিসহ কয়েকটি দাবিতে ৭২ ঘণ্টা ধর্মঘটের ডাক দেয় ঢাকা মহানগর সিএনজি অটোরিকশা মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদ। মঙ্গলবার থেকে ১৭ অক্টোবর পর্যন্ত এই ধর্মঘট চলবে।

রোববার (১৩ অক্টোবর) রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় এই ধর্মঘটের ঘোষণা দেন সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক মামুনুর রশীদ পিন্টু।

এএস/বিএ/এমকেএইচ