সচিবের বিদেশ সফরসহ সব অভিযোগের খোঁজ নিতে বললেন মন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:৫২ পিএম, ১৬ অক্টোবর ২০১৯

বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব সৌরেন্দ্রনাথ চক্রবর্ত্তীর বিদেশ সফর, অসদাচরণ ও অনিয়মের বিষয়ে খোঁজ নেয়ার কথা জানিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

বুধবার (১৬ অক্টোবর) দুপুরে রাজধানীর বিবিএস ভবনে এক কর্মশালায় এ কথা বলেন পরিকল্পনামন্ত্রী।

কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যের শেষ দিকে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘যেহেতু আমাদের সচিব (সৌরেন্দ্রনাথ চক্রবর্ত্তী) মহোদয় এখানে আছেন, সাংবাদিক বন্ধুরাও এখানে আছেন। সবার প্রতি সম্মান রেখেই বলছি। তাদের কিছু লেখা আমরা পড়ছি কাগজে। অনেক তথ্য বেরিয়েছে কাগজের প্রথম পাতায়। সে সম্পর্কে সচিব মহোদয় বোধহয়…। হতাশ হয়ে বা ক্রোধান্বিত হয়ে নয়, এটাকে ঠান্ডা মাথায় খোঁজ নিয়ে দেখতে হবে। যে বিষয়গুলো আসছে, সেগুলো আমাদের ঘরে আছে কি না দেখা প্রয়োজন। এগুলোকে উড়িয়ে দেয়ার বিষয় নয়।’

সংবাদপত্রে প্রকাশিত সংবাদের কিছু বিষয়ের দৃশ্যত বাস্তবতা নেই বলেও দাবি করেন পরিকল্পনামন্ত্রী। তার বক্তব্য, ‘একই সময়ে কিছু বিষয় আছে দৃশ্যত সঠিক নয়। আমি আমারটাই বলতে পারি, আমাকে কোট করে বক্তব্য ছাপা হয়েছে। কিন্তু এটা সঠিক নয়। এতে আমি কষ্ট পেয়েছি। তার (বিবিএসের সচিব) সম্পর্কে এরকম মন্তব্য জ্ঞানত করার কথা নয় এবং করিওনি। যে ভদ্রলোক আমার সাক্ষাৎকার নিয়েছিলেন, তাকে আমি স্নেহ করি একজন পেশাজীবী হিসেবে।’

কথার ধারাবাহিকতায় এম এ মান্নান বলেন, ‘তিনি (সাংবাদিক) সার্বিকভাবে পরিসংখ্যান বিভাগ নিয়ে কথা বলেছিলেন, আমি তার সঙ্গে খোলামেলা কথা বলেছি। পরিসংখ্যানের মান নিয়ে কথা বলেছেন। আমি বলেছি, হ্যাঁ, অতীতে ছিল, এখনও আছে। আমরা যে ধোয়া তুলসি পাতা, তা নয়। একেবারে এভাবেই কথা বলেছি।’

খবরে এক বছরে ১৩ বার স্ত্রী-সন্তানকে নিয়ে পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগ সচিব সৌরেন্দ্রনাথ চক্রবর্ত্তীর বিদেশ সফরের তথ্য উল্লেখ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘তারপর সরকারের বিভিন্ন খাতের বিদেশ সফর নিয়ে প্রশ্ন করেছেন। আমি বলেছি, জানি এ সম্পর্কে। আপনারা লেখছেন, সরকারও সচেতন। কিন্তু সেখানে সৌরেন্দ্রনাথ চক্রবর্ত্তী কতবার বিদেশ গেছেন বা কী করেছেন, এটা তার প্রশ্নেও ছিল না এবং তার নামও সে নেয়নি আমার সামনে।’

তবে সরকারের বিভিন্ন খাতের বিদেশ সফরের যৌক্তিকতা নিয়ে সংবাদপত্রটির প্রতিনিধির সঙ্গে কথা বলেছেন বলে জানান পরিকল্পনামন্ত্রী।

তিনি বলেন, ‘হ্যাঁ, আমি বলেছি যে পরিসংখ্যান নয়, সরকারের ভেতরের সফর আছে, যেগুলোর যথাযথ নিয়ে প্রশ্ন উঠতে পারে। আমার মনে প্রশ্ন আছে এ নিয়ে, এটা আমি বলেছি। এখনও বলছি। এবং অনেক সফর আছে আমি হলে যেতাম না, এটাও আমি বলেছি। কিন্তু সৌরেন্দ্রনাথের নামও আসেনি, তার পদও আসেনি, তার দায়িত্বও আসেনি। কিন্তু সেটাকে বক্স করে প্রথম পাতায় বলা হয়েছে, আমি নাকি বলেছি তিনি বিদেশ গেছেন এতবার এবং আমি হলে যেতাম না। আমি সরি, বিষয়টা বারবার বলছি। কারণ বিষয়টা আমাকে খুব কষ্ট দিয়েছে। সর্বোপরি তিনি আমাদের সহকর্মী, জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা। আজকে দেখলাম আইএমইডি সম্পর্কে এসেছে। এগুলো আমরা দেখব। বিষয়টাকে ইতিবাচকভাবে নেবেন বলে আশা করি।’

কর্মশালায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এসডিজি-বিষয়ক মুখ্য সমন্বয়ক আবুল কালাম আজাদসহ অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।

পিডি/এএইচ/জেআইএম