নগরবাসীর অভিযোগের জন্য প্রস্তুত স্বচ্ছ কাঁচের বক্স

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:৪৫ পিএম, ২২ অক্টোবর ২০১৯

প্রায় দুই কোটি মানুষের বাস রাজধানী ঢাকায়। হাজারও সমস্যায় জর্জরিত এ শহরের মানুষ। তারপরও প্রতিনিয়ত মানুষের সংখ্যা বাড়ছেই। সেই সঙ্গে বাড়ছে সমস্যার পরিধি। এই অবস্থায় নারী-শিশুসহ সকল নাগরিকের অভিযোগ জানতে এবং তার সমাধান দিতে ব্যতিক্রমী উদ্যোগ গ্রহণ করছে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি)।

নাগরিকদের সমস্যার কথা জানতে প্রতিটি ওয়ার্ডে বসানো হবে স্বচ্ছ কাঁচের বক্স। সেখানে সব ধরনের নাগরিক সমস্যার কথা লিখে জমা দিতে পারবেন ডিএনসিসির নাগরিকরা। অভিযোগকারীর নাম-ঠিকানা গোপন রেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের উদ্যোগ নেবে সংস্থাটি।

মঙ্গলবার গুলশানে ডিএনসিসির নগর ভবনে গিয়ে দেখা গেছে, অভিযোগ বক্স স্থাপনের লক্ষ্যে নিচতলায় এনে জমা করা হয়েছে স্বচ্ছ কাঁচের অভিযোগ বক্সগুলো। সেখানে লেখা রয়েছে ‘নারী ও শিশুবান্ধব সমাজ গড়ায় আপনার সুনির্দিষ্ট অভিযোগ ও পরামর্শ প্রদান করুন’।

box

অভিযোগ বক্সগুলো স্থাপনে সব ধরনের প্রস্তুতি ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। খুব শিগগিরই এগুলো ডিএনসিসির ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে দিয়ে দেয়া হবে। মূলত নারী ও শিশুদের নিরাপত্তা দিতেই এই অভিযোগ বক্স স্থাপনের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে ডিএনসিসি।

ডিএনসিসি সূত্রে জানা গেছে, প্রতিটি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর অফিস এবং আঞ্চলিক অফিসে বসানো হবে স্বচ্ছ কাঁচের বক্স। এই অভিযোগ বক্সে ওয়ার্ডের যেকোনো অনিয়ম, কাজের গাফিলতি বা যেকোনো অনিয়ম পরিলক্ষিত হলে যে কেউ লিখিত আকারে এখানে অভিযোগ জানাতে পারবেন। সেক্ষেত্রে অভিযোগকারীর তথ্য গোপন রেখে নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে ডিএনসিসি।

অভিযোগ বক্স সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের কাউন্সিলরা খুলতে পারবেন না। আর সমস্ত অভিযোগ জেনে সমাধানের জন্য উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে। এ বিষয়ে নগর ভবনে একটি সেল গঠন করা হচ্ছে। সেই সেল থেকে নারী ও শিশুদের আইনি সহয়তাসহ যেকোনো ধরনের সহযোগিতা দেয়া হবে।

box

এদিকে সম্প্রতি নারী, শিশু ও প্রতিবন্ধীবান্ধব ঢাকা গড়ার লক্ষ্যে ডিএনসিসি মেয়রের সঙ্গে বিশিষ্ট নারীজনদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী নারী, শিশু ও প্রতিবান্ধব নগরী গড়ার লক্ষ্যে ৯ সদস্যবিশিষ্ট একটি কমিটি করে দেয়া হচ্ছে।

ওই সভায় ডিএনসিসির মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, নারী, শিশু ও প্রতিবন্ধীদের ওপর সব ধরনের নির্যাতন বন্ধ করার লক্ষ্যে ডিএনসিসির প্রতিটি ওয়ার্ডে, মার্কেটে এবং অন্যান্য পাবলিক প্লেসে অভিযোগ বক্স স্থাপন করা হবে। সে সকল অভিযোগের ভিত্তিতে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এএস/বিএ/পিআর