ঢাকায় জুতার ফ্যাক্টরির কর্মচারীকে হাত-পায়ের রগ কেটে হত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৪৫ পিএম, ২২ অক্টোবর ২০১৯
প্রতীকী ছবি

রাজধানীর পুরান ঢাকার ওসমান গনি রোডে আল-আমিন নামের একটি জুতার ফ্যাক্টরির এক কর্মচারীকে হাত-পায়ের রগ কেটে হত্যা করা হয়েছে। হত্যার শিকার কর্মচারীর নাম পায়েল। তার বাড়ি কিশোরগঞ্জে।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে ১০৪/৩ হাজি ওসমান গনি রোডের ওই জুতার কারখানায় এ হত্যাকাণ্ড ঘটে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে সুরতহাল শেষে মিডফোর্ড হাসপাতালে পাঠিয়েছে বংশাল থানা পুলিশ।

পিয়াল হত্যায় ওই কারখানার কর্মচারী বাবুকে আটক করা হয়েছে।

বংশাল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোজাফফর হোসেন জানান, ‘সুরতহালে দেখা গেছে, নিহতের দুই হাতের রগ ও দুই পায়ের হাঁটুর পেছন থেকে কেটে দেয়া হয়েছে। হাত এমনভাবে কাটা হয়েছে যে, একটু ঝুলে আছে। রশি দিয়ে গলা চেপে হত্যা করা হয়। হত্যা নিশ্চিত হতেই হাত ও পায়ের রগ কাটা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।’

এসআই জানান, পিয়াল দীর্ঘদিন ধরে ওই জুতার দোকানে চাকরি করত। পিয়ালকে হত্যার ঘটনায় সহকর্মী বাবুকে আটক করা হয়েছে। বাবু ও পিয়ালের বাড়ি কিশোরগঞ্জে।

‘পূর্ব শত্রুতা ও সকালে তর্ক-বিতর্কের জেরে পিয়ালকে শ্বাসরোধে এবং রগ কেটে হত্যার কথা প্রাথমিকভাবে স্বীকার করেছে আটক বাবু। এ ঘটনায় একটি হত্যা মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। মরদেহ মিডফোর্ড হাসপাতার মর্গে পাঠানো হয়েছে’,- বলেন এসআই মোজাফফর হোসেন।

জেইউ/জেডএ/পিআর