বশেমুরবিপ্রবির সাবেক ভিসির বিরুদ্ধে দুদকের অনুসন্ধান

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:৫২ পিএম, ১৩ নভেম্বর ২০১৯

অর্থ আত্মসাৎ ও অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) পদত্যাগী উপাচার্য খোন্দকার নাসির উদ্দিনের বিরুদ্ধে অনুসন্ধান শুরু করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

বুধবার দুদকের প্রধান কার্যালয়ে কমিশন থেকে নেয়া সিদ্ধান্তে তার বিরুদ্ধে অনুসন্ধান শুরু করা হয়েছে। দুদকের জনসংযোগ দফতর বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। অভিযোগটি অনুসন্ধান করছেন দুদকের পরিচালক শেখ মো. ফানাফিল্ল্যা।

গত ১১ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী ও ক্যাম্পাস সাংবাদিক ফাতেমা-তুজ-জিনিয়াকে সাময়িকভাবে বহিষ্কারের ঘটনাকে কেন্দ্র করে শিক্ষার্থীদের মধ্যে ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। পরে জিনিয়ার বহিষ্কারাদেশ তুলে নেয়াসহ আরও কয়েকটি দাবি কর্তৃপক্ষ মেনে নিলেও গত ১৯ সেপ্টেম্বর উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে অন্দোলন শুরু করেন শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে গত ২১ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করে সকাল ১০টার মধ্যে হল ত্যাগের নির্দেশ দেয়া হয়। নির্দেশ উপেক্ষা করে শিক্ষার্থীরা আন্দোলন চালিয়ে যায়। এ অবস্থায় ওই দিন বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন গোবরা এলাকায় আন্দোলনরত শিক্ষার্থী ও সাংবাদিকদের ওপর হামলা করে বহিরাগতরা। এতে ২০ শিক্ষার্থী আহত হন। শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে ওইদিন দুপুরে পদত্যাগ করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর হুমায়ুন কবির। এরপর আরও দুজন সহকারী প্রক্টর পদত্যাগ করেন।

শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনার পর শিক্ষার্থীদের আন্দোলন আরও বেগবান হয়। পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে ওইদিনই উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলনের বিষয়টি খতিয়ে দেখতে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। পরবর্তী সময়ে গত ২৬ সেপ্টেম্বর ইউজিসির তদন্ত কমিটি তাদের তদন্ত কাজ সম্পন্ন করে। ওই তদন্তে উপাচার্য অধ্যাপক ড. খোন্দকার নাসির উদ্দিনের অনিয়ম-দুর্নীতির আলামত পায় কমিটি। গত ৩০ সেপ্টেম্বর তিনি পদত্যাগ করেন। গত ৭ অক্টোবর ইলেক্ট্রনিক্স অ‌্যান্ড টেলিকমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং (ইটিই) বিভাগের অধ্যাপক মো. শাহজাহান ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন।

এফএইচ/এমএসএইচ/পিআর