ডায়াবেটিক রোগীদের ডিজিটাল প্লাটফর্মে নিয়ে আসতে হবে

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:০৬ পিএম, ১৩ নভেম্বর ২০১৯

বাংলাদেশ ডায়াবেটিক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক এ কে আজাদ খান বলেছেন, বাংলাদেশের মতো উন্নয়নশীল দেশে ডায়াবেটিক বেশি হচ্ছে। এখানে এখন জীবনমানের প্রতিনিয়ত পরিবর্তন ঘটছে। যার মধ্যে মানুষের হাঁটার অভ্যাস কমছে, খাদ্যাভাসে পরিবর্তন এসেছে। যেখান থেকে বেরিয়ে আসতে হবে।

তিনি বলেন, ডায়াবেটিক এমন একটি রোগ যা ধারাবাহিকভাবে পরীক্ষার মধ্য দিয়ে যেতে হয়। এক্ষেত্রে এখন আমাদের ডিজিটাল প্লাটফর্ম ব্যবহার করতে হবে। যেখানে রোগীর জন্য নিজের বর্তমান অবস্থা নির্ণয় হবে সহজতর।

বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস উপলক্ষে জনসচেতনতা সৃষ্টির মাধ্যমে ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধে পালস হেলথ কেয়ার সার্ভিসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। ‘বাংলাদেশ ডায়াবেটিক অ্যাসোসিয়েশন’র সহযোগিতায় পালস হেলথ কেয়ার সার্ভিসের সঙ্গী হয়েছে সুপারশপ ‘স্বপ্ন’। বুধবার (১৩ নভেম্বর) ‘স্বপ্ন’র গুলশান-১ আউটলেটে আয়োজিত অনুষ্ঠানে এই কার্যক্রমের উদ্বোধন ঘোষণা করা হয়।

নতুন এই সেবা সম্পর্কে অধ্যাপক আজাদ বলেন, সাধারণ মানুষের জন্য চালুকৃত এই অনলাইনে স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রমে সহায়তা করতে পেরে আমাদের সংগঠন ‘বাংলাদেশ ডায়াবেটিক অ্যাসোসিয়েশন’ খুবই গর্বিত। দেশের স্বাস্থসেবা খাতকে পুরোপুরি ডিজিটাল করে তোলার ক্ষেত্রে এটি শুভসূচনা বলে আমি বিশ্বাস করি। ডায়াবেটিস সেবায় অনলাইন প্লাটফর্ম আরও অনেক বেশি কার্যকর হবে এবং রোগীদের ধারাবাহিক পরীক্ষা নিশ্চিত করবে।

অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী বক্তব্যে এসিআই লজিস্টিকস লিমিটেডের নির্বাহী পরিচালক সাব্বির হাসান নাসির বলেন, ‘স্বপ্ন’ গ্রাহকদের সুস্থতার বিষয়টিতে সবসময় সর্বোচ্চ গুরুত্ব প্রদান করে। সরকারের টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে ডায়াবেটিসের মতো অসংক্রামক রোগ নিয়ন্ত্রণে সরকারের কর্মসূচিতে সবসময় সহযোগিতা করতে বদ্ধপরিকর ‘স্বপ্ন’। এই ধরনের উদ্যোগে গ্রাহকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় স্বপ্নের পথচলায় আরও একটি মাইলফলক যুক্ত হলো।

অনুষ্ঠানে পালস হেলথ কেয়ার সার্ভিসের প্রতিষ্ঠাতা রুবাবা দৌলা বলেন, বাংলাদেশে ডায়াবেটিসের মতো রোগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের জন্য সহজে দরকারি মানসম্পন্ন স্বাস্থ্যসেবা প্রাপ্তি সুযোগ কম। স্বপ্নের আউটলেটে আয়োজিত এই কার্যক্রমের মাধ্যমে ডিজিটাল স্বাস্থ্যসেবার পাশাপাশি টেলি-মেডিসিনের অফুরান সম্ভাবনা সম্পর্কে মানুষ জানতে পারবে বলে আমাদের প্রত্যাশা।

আজ (১৩ নভেম্বর) থেকে আগামী ১৬ নভেম্বর পর্যন্ত সুপারশপ স্বপ্নের ঢাকাস্থ মিরপুর-১১, উত্তরা-৩ এবং সিলেটের আম্বরখান আউটলেটে এই কার্যক্রম চলবে। আগামী ১৪, ১৫ এবং ১৬ নভেম্বর সকাল ১১টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত স্বপ্নের আউটলেটে এই সেবা পাওয়া যাবে। গ্রাহকরা পালস হেলথ কেয়ার প্লাটফর্মে নিবন্ধন ছাড়াও রক্তের গ্লুকোজ, রক্তচাপ এবং বিএমআই পরীক্ষার মতো স্বাস্থ্যপরীক্ষা এখানে বিনামূল্যে পাবেন। এর বাইরে বিনামূল্যে ডাক্তারি পরামর্শ ছাড়াও কলসেন্টারে সার্বক্ষণিক স্বাস্থ্য পরামর্শ প্রাপ্তির বিশেষ সুবিধাও এখানে রয়েছে।

ইব্রাহিম হেলথলাইনের সহায়তায় চালুকৃত স্বাস্থ্য কলসেন্টারে ডায়াবেটিস আক্রান্ত রোগীরা দ্রুততার সঙ্গে সার্বক্ষণিক সেবা পাবেন বলে জানিয়েছে পালস হেলথ কেয়ার সার্ভিস। এছাড়া অনলাইনে ডাক্তারের অ্যাপয়েন্টমেন্ট, ভিডিওতে ডাক্তারি পরামর্শ এবং অন্যান্য স্বাস্থ্যসেবা প্রাপ্তির সুযোগও রয়েছে। এক্ষেত্রে রোগীরা বিনামূল্যে নিবন্ধন সুবিধা পেলেও ডাক্তারি পরামর্শের জন্য প্রযোজ্য ফিস দিতে হবে।

মাত্র ৪৯৯ টাকা প্রদানের মাধ্যমে এক বছরের জন্য কলসেন্টারটির সদস্য হওয়ার সুযোগ দিচ্ছে পালস হেলথ কেয়ার সার্ভিস। এতে অনলাইনে সংযুক্ত হওয়ার জন্য গুগল প্লে-স্টোর এবং আইওএস অ্যাপ-স্টোর থেকে আপনাকে ‘পালস হেলথ কেয়ার সার্ভিসেস’ অ্যাপটি ডাউনলোড করতে হবে।

বিএ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]