সেবার মানোন্নয়নে ডিএসসিসিতে কমিউনিটি অ্যাম্বাসেডর টিম

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:৪৩ পিএম, ১৯ নভেম্বর ২০১৯

বর্জ্য ব্যবস্থাপনা, সড়ক বাতি, মশক নিয়ন্ত্রণ, সড়ক মেরামতসহ নানা সমস্যা সমাধান এবং সেবা কার্যক্রম মনিটরিংয়ের জন্য কমিউনিটি অ্যাম্বাসেডর টিমের কার্যক্রম শুরু করেছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন (ডিএসসিসি)। ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের আওতায় ৭৫টি ওয়ার্ডে প্রায় ১৮শ’ জন কমিউনিটি অ্যাম্বাসেডর টিমের সদস্য হিসেবে কাজ করবেন।

মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) নগর ভবন প্রাঙ্গণে নাগরিক সেবার মানোন্নয়নে কমিউনিটি অ্যাম্বাসেডর টিমের কার্যক্রম উদ্বোধন করেন ডিএসসিসি মেয়র সাঈদ খোকন।

DSCC

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জানানো হয়, ‘কমিউনিটি অ্যাম্বাসাডর’ নামে সেবা পদ্ধতির আনুষ্ঠানিক কার্যক্রমে প্রতিটি ওয়ার্ডকে ৪ থেকে ৫টি ইউনিটে ভাগ করা হয়েছে। প্রতি ইউনিটে ৭ জন স্বেচ্ছাসেবী কাজ করবেন। রোস্টার অনুযায়ী স্বেচ্ছাসেবীরা তাদের আওতাধীন এলাকার রাস্তা, ড্রেন, সড়ক বাতিসহ অন্যান্য সেবা কার্যক্রম ঘুরে দেখবেন এবং সে অনুযায়ী যোগাযোগের জন্য গ্রুপে রিপোর্ট, পরামর্শ ও অভিযোগ তুলে ধরবেন।

গ্রুপটি পরিচালনা করার জন্য সংস্থাটির ৫টি অঞ্চলের প্রধানরা সমন্বয়কের দায়িত্ব পালন করবেন। যে বিষয়ে অভিযোগ আসবে সেগুলো সংশ্লিষ্ট অঞ্চলের প্রত্যেক বিভাগে চলে যাবে। স্বেচ্ছাসেবীদের অভিযোগ, পরামর্শ ও রিপোর্ট পাওয়ার পর সংশ্লিষ্ট আঞ্চলিক কার্যালয় থেকে সমস্যাগুলোর দ্রুত সমাধান করা হবে। সমাধান করতে দেরি হলে নির্দিষ্ট বিভাগকে শাস্তির আওতায় আনা হবে।

DSCC-2

স্বেচ্ছাসেবী বা কমিউনিটি অ্যাম্বাসেডর হিসেবে ওয়ার্ডের দায়িত্বশীল নেতাকর্মী, অবসরপ্রাপ্ত চাকরিজীবী, মসজিদের ইমাম, মন্দিরের পুরোহিত ছাড়াও সরকারি বেসরকারি চাকরিজীবীরা থাকবেন।

কমিউনিটি অ্যাম্বাসেডর টিমের কার্যক্রম উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শাহ মো. ইমদাদুল হক, প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপক এয়ার কমোডোর জাহিদ হোসেন, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা বি. জে. ডা. শরীফ আহমেদ, প্রধান প্রকৌশলী রেজাউল করিম এবং ডিএসসিসির সকল ওয়ার্ড থেকে আসা কমিউনিটি অ্যাম্বাসেডররা উপস্থিত ছিলেন।

এএস/আরএস/পিআর